প্রসঙ্গ যখন চুলের যত্নের রুটিন/ hair care routine, আমরা জানি সারাক্ষণ সে ব্যাপারে আপনার পুলিশি নজর থাকে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, তাতে আপনার চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া, নির্জীব দেখানো, বা ঝরে পড়া, কোনওটাই আটকাবে না। আর যদি চুলের হাল ফেরানোর হাজার চেষ্টা করেও ফল না পেয়ে থাকেন, তা হলে হয়তো আপনার কোথাও ভুল হচ্ছে। চুলের যত্নের ক্ষেত্রে এমন কিছু সাধারণ ভুল আমরা জেনে বা না জেনে করে ফেলি, যা চুলের স্বাস্থ্য একেবারে নষ্ট করে দিতে পারে। চুল সুস্থ ও সুন্দর রাখতে এড়িয়ে চলুন এ সব সাধারণ ভুল। জেনে নিন সুন্দর চুলের স্বার্থেই হেয়ার কেয়ারের সময় কী কী ভুল করা চলবে না একেবারেই!

 

1.অতিরিক্ত চুল আঁচড়ানো

. অতিরিক্ত চুল আঁচড়ানো

ছোটবেলায় বড়রা সবাই বলতেন কেশবতী রাজকন্যার মতো চুল পেতে হলে একশোবার করে চুল আঁচড়ানো/ brush your hair হবে। কিন্তু সে কথা শুনে চুল আঁচড়াতে আঁচড়াতে হাতে যতই ব্যথা হয়ে যাক, কাজের কাজ আলাদা করে কিছু হবে না। চুলের জট ছাড়াতে বা চুল স্টাইল করতে মাত্র কয়েকবার চিরুনি বা ব্রাশ চালানোই যথেষ্ট। তার চেয়ে বেশি আঁচড়ালে অকারণ ঘষা লাগবে চুলে আর তার ফলে চুল উঠেও যেতে পারে।

 

2. হেয়ার স্প্রে না লাগানো

2. হেয়ার স্প্রে না লাগানো

মজা করছি না একেবারেই! হেয়ার স্প্রে চুল নষ্ট করে দেবে ভয়ে যদি এড়িয়ে চলেন, তা হলে আমাদের কাছে অন্য খবর আছে। স্টাইলিংয়ের জন্যই হোক, বা একটু বাড়তি সৌন্দর্যের জন্য, যে কারণেই হেয়ার স্প্রে লাগান, সত্যিটা হল হেয়ার স্প্রেতে একধরনের পলিমার থাকে যা চুলের পক্ষে ভালো। আপনার চুলে পলিমার শুকিয়ে লেগে থাকে, অ্যালকোহল নয়। হেয়ার স্প্রে আপনার চুলে লাগার আগেই তার অ্যালকোহল উবে যায়, আর তার বদলে আর্দ্রতা ধরে রাখে পলিমার, আর আপনি পেয়ে যান রুক্ষতা মুক্ত কোমল চুল।

জলীয় বাষ্পরোধক, রুক্ষতা নিয়ন্ত্রণকারী হেয়ার স্প্রে খুঁজলে বেছে নিন ট্রেসমে কমপ্রেসড মাইক্রো মিস্ট ইনভিজিবল হোল্ড ন্যাচারাল ফিনিশ স্মুদ হোল্ড লেভেল 2 হেয়ার স্প্রে/ Tresemme Compressed Micro Mist Invisible Hold Natural Finish Smooth Hold Level 2 Hair Spray। চুলে স্বাভাবিক নমনীয় কোমল ফিনিশ এনে দেবে এই হেয়ার স্প্রে!

 

3. ভেজা চুল আঁচড়ানো

3. ভেজা চুল আঁচড়ানো

ভেজা অবস্থায় চুল দুর্বল আর ভঙ্গুর থাকে, ফলে ভেজা চুল আঁচড়ালে চুল গোছা গোছা উঠে যাবে। তা ছাড়া ভেজা চুল ব্রাশ করলে চুল শুকোনোর পর তা রুক্ষও হয়ে যেতে পারে! তাই চুল ধোয়ার আগে/ hair pre-wash আঁচড়ে নিন, আর ধোয়া হয়ে গেলে চুলে আঙুল চালিয়ে জট ছাড়িয়ে নিন।

 

4. স্ক্যাল্পে কন্ডিশনার লাগানো

4. স্ক্যাল্পে কন্ডিশনার লাগানো

একটা ছোট্ট পরামর্শ, আগেও দিয়েছি, আবারও মনে করিয়ে দিই: কন্ডিশনার শুধুমাত্র চুলের মাঝামাঝি থেকে ডগা পর্যন্তই লাগান! স্ক্যাল্পে কন্ডিশনার লাগালে/ Applying it to your scalp চুলের ফলিকল বন্ধ হয়ে গিয়ে চুল খুব তেলতেলে দেখাবে। লাভ বিউটি অ্যান্ড প্ল্যানেট ন্যাচারাল কোকোনাট ওয়াটার অ্যান্ড মিমোসা ভল্যুম কন্ডিশনার/ Love Beauty & Planet Natural Coconut Water & Mimosa Volume Conditioner লাগান চুলের মাঝামাঝি থেকে শেষ ভাগ পর্যন্ত, এতে চুলের ভল্যুম বাড়বে। তা ছাড়া একটা স্বাভাবিক বাউন্স আর চকচকেভাবও আসবে চুলে।

 

5. হেয়ার মাস্ক ব্যবহার না করা

5. হেয়ার মাস্ক ব্যবহার না করা

বাড়তি পুষ্টি পেতে মুখে রোজ ময়শ্চারাইজার মাখেন, ফেস মাস্কও লাগান, তাই না? তা হলে চুলের বেলায় আলাদা নিয়ম কেন হবে? শুধু কন্ডিশনার ব্যবহার করা ভালো, কিন্তু চুলে বাড়তি আর্দ্রতা আর পুষ্টি চাইলে আপনার দরকার মাস্ক। ডাভ ইনটেন্স ড্যামেজ রিপেয়ার হেয়ার মাস্ক/ Dove Intense Damage Repair Hair Mask আপনার চুলের জন্য আদর্শ! এতে রয়েছে এক-চতুর্থাংশ ময়শ্চারাইজিং মিল্ক যা চুলে গভীর থেকে পুষ্টি সঞ্চার করে/ nourishes hair, আর কেরাটিন অ্যাক্টিভ যা চুলের ক্ষতঁই মেরামত করে। এই দুটিই চুলের জন্য খুবই উপকারী আর প্রয়োজনীয়ও বটে!