দিনের পর দিন, বছরের পর বছর একই হেয়ারস্টাইল করে কলেজে যাচ্ছেন? একদম ঠিক নয়! বরং আগামী উৎসবের মরশুম আসার আগেই পালটে ফেলুন নিজের লুক, আর সেটা করার হাজারটা উপায় আছে। আর হ্যাঁ, তার জন্য চুল কেটে ভোল বদলে ফেলারও কোনও দরকার নেই! চুল না কেটে শুধু হেয়ারস্টাইল পালটে নিজেকে দিন মিনি মেকওভার।

রইল তার 5টা দারুণ উপায়।

 

ঝুরো চুলে বাজিমাত

ঝুরো চুলে বাজিমাত

ঝটপট আর সহজে লুক বদলে ফেলতে চান? মুখের চারপাশে ফ্রেমের মতো করে ফেলে রাখুন ঝুরো চুল বা ব্যাংস। সবধরনের, সব দৈর্ঘ্যের চুলেই এই স্টাইল মানিয়ে যায়, আর এভাবে মুখের চারপাশে বা কপালের ওপর চুল ফেলে রাখলে আপনি নানাধরনের স্টাইলিং দিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করতে পারবেন, মুখের শেপও নতুন করে ডিফাইন করতে পারবেন। চপি ব্যাংস, কার্টেন ব্যাংস, বা বেবি ব্যাংসেরএত মতো নানান স্টাইলের মধ্যে থেকে বেছে নিন আপনার জন্য সবচেয়ে মানানসই স্টাইলটি।

 

ফুটে উঠুক রঙের ঝিলিক

ফুটে উঠুক রঙের ঝিলিক

চুলে একটু নাটকীয় ছোঁয়া আনতে চান? কয়েকগোছা চুল রাঙিয়ে নিন উজ্জ্বল নিয়ন বা হালকা ওমব্রে শেডে। দারুণ স্টাইলিশ দেখাবে, নতুন ধরনের লুক পাবেন।

 

অ্যাকসেসরির কেরামতি

অ্যাকসেসরির কেরামতি

খোঁপা বা বিনুনিতে চুল বেঁধে তা সাজিয়ে নিন হেয়ারব্যান্ড বা রংবেরঙের স্কার্ফে। এত কিছু করতে ইচ্ছে না হলে কয়েকটা পুঁতি বসানো বাহারি ক্লিপ বা ব্যান্ড লাগিয়ে নিতে পারেন। কলেজের পার্টি বা ফেস্টে গ্ল্যামারাস দেখাতে জুড়ি নেই এই স্টাইলের।

 

নকলনবিশির খেল

নকলনবিশির খেল

বব চুল ভালো লাগে অথচ নিজের লম্বা চুল কেটে ফেলতেও ইচ্ছে করে না? অসুবিধে নেই! লম্বা চুলেই করে ফেলুন নকল বব। চুলের তলার অংশটা ভেতরদিকে ভাঁজ করে গুটিয়ে নিয়ে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিলেই তৈরি নকল বব। আবার আন্ডারকাট স্টাইল নকল করতে হলে পুরো চুলটা হেয়ারলাইন ঘেঁষে একদিকে টেনে এনে বিনুনি বেঁধে নিলেই পেয়ে যাবেন নতুন আন্ডারকাট (হোক না তা একদিনের জন্য)!

 

পালটে দিন সিঁথি

পালটে দিন সিঁথি

যদি ভেবে থাকেন সিঁথি পালটালে আর কী লুক পালটাবে, তা হলে ভুল ভাবছেন! চিরাচরিত অবস্থান থেকে একদম অন্যদিকে সিঁথি করে দেখুন মুখ কতটা বদলে যায় আপনার! মাঝখানে সিঁথি যতটা অভিজাত আর স্টাইলিশ, ধারে সিঁথিও ঠিক ততটাই গ্ল্যামারাস! বেছে নিন আপনার পছন্দের সিঁথি!

ফোটো সৌজন্য: পিন্টারেস্ট