নতুন নতুনভাবে সেজে ওঠার জন্য চুলের নতুন নতুন কায়দা করা বেশ মজার ব্যাপার| কিন্তু বারবার তাপ প্রয়োগ করে চুল কার্ল করলে তাতে সুদূর ভবিষ্যতে চুলের ক্ষতিই হয়|

আমরা আপনাকে জানাচ্ছি, কী করে তাপ প্রয়োগ করার যন্ত্র ব্যবহার না করেও দারুণ সুন্দরভাবে চুল কার্ল করা সম্ভব| এর সবচেয়ে ভালো দিকটি হল, আপনি চুল সেট করতে দেওয়ার পরে  যতক্ষণে চুলে কার্ল তৈরি হচ্ছে, তখন অন্য সব দরকারি কাজ অনায়াসে সেরে নিতে পারবেন|

হেয়ারব্যান্ড কার্লস
বিচ ওয়েভস
ববি পিন কার্লস

হেয়ারব্যান্ড কার্লস
 

হেয়ারব্যান্ড কার্লস

চুল ভালো করে আঁচড়ে খুব হালকা হাতে সামান্য ভিজিয়ে নিন| চুলের উপরে একটি হেয়ারব্যান্ড লাগিয়ে চুলের সামনের অংশটি তার নিচে ঢুকিয়ে দিন| এবার ক্রমাগত ধীরে ধীরে মাথার পেছনদিকে যান আর পেছনের অংশের চুল গুছি করে করে পাকিয়ে পাকিয়ে ব্যান্ডের নিচে ঢুকিয়ে দিতে থাকুন| এভাবেই রেখে দিন কয়েক ঘণ্টার জন্য বা সারা রাত ধরে| তারপর ব্যান্ড খুলে ফেলুন| দেখুন আপনার চুলে কেমন সুন্দর বড়ো বড়ো আর আঁটোসাঁটো কার্ল তৈরি হয়ে গেছে!

বিচ ওয়েভস
 

বিচ ওয়েভস

সবচেয়ে সহজ উপায়ে চুলে বিচ ওয়েভস পেতে হলে স্কুলজীবনে ফিরে যান| সেই তখনকার চুলের স্টাইল! অর্থাৎ বিনুনি| চুল খুব হালকা হাতে সামান্য ভিজিয়ে নিয়ে তাতে দু’টি বিনুনি বেঁধে রাতে ঘুমোতে যান| পরেরদিন সকালবেলায় উঠে বিনুনি খুলে ফেলে দেখুন কী চমৎকার বিচ ওয়েভস তৈরি হয়েছে আপনার চুলে! যদি আরও আঁটোসাঁটো ওয়েভ চান, তাহলে চুলে অনেকগুলি ছোট ছোট ভাগ করে নিয়ে অনেক বেশি সংখ্যায় ছোট ছোট বিনুনি বাঁধুন |

ববি পিন কার্লস
 

ববি পিন কার্লস

যদি ডিফাইন্ড কোঁকড়া চুলের ভক্ত হন, তাহলে এই পদ্ধতিটি চেষ্টা করে দেখতে পারেন| চুলকে ছোট ছোট ভাগে ভাগ করে নিন| তারপর প্রতিটি ভাগকে রোল করে ববি পিন দিয়ে শক্ত করে আটকে রাখুন| এবার সব চুল রোল করা হয়ে গেলে চুলে সামান্য জল বা গোলাপজল ছিটিয়ে দিয়ে কয়েক ঘণ্টা ওভাবেই রেখে দিন| এই উপায়ে আপনি সহজেই পেয়ে যাবেন যে কোনও পার্টিতে নজরকাড়া সুন্দরী হয়ে ওঠার মতো ডিফাইন্ড কার্লস|