ঝকঝকে নিখুঁত, উজ্জ্বল ত্বকের মালকিন কোনও মেয়ের দিকে যখনই চোখ যায়, তখনই ভাবতে বসি ওঁরা কী এমন আলাদা কিছু করেন যাতে ত্বকের ভোল এভাবে পালটে যেতে পারে! এমনিতে ত্বক পরিচর্যার রুটিন আমি যথেষ্ট মেনে চলি, কোনওমতেই সে রুটিনের এদিক ওদিক হয় না! তা হলে কেন আমার ত্বকও ওরকম সুন্দর মসৃণ হয় না? এ প্রশ্নটা আমাকে তাড়া করে বেরিয়েছে দীর্ঘদিন।

অবশেষে তার উত্তর খুঁজে পেয়েছি আমি। আসলে এই মেয়েরা নিয়মিত ত্বক পরিচর্যার পাশাপাশি এমন কিছু করেন যা তাঁদের স্কিনকেয়ার প্রডাক্টের কার্যকারিতা কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেয়! তার জন্যও যে বিশেষ কাঠখড় পোড়াতে হবে তাও নয়! প্রতিদিন কিছু সাধারণ অভ্যেস গড়ে তুলতে পারলেই পালটে যাবে আপনার ত্বকের হাল। আসুন দেখে নিই।

 

01. প্রচুর জল খান

01. প্রচুর জল খান

একটা বাড়তি পয়সা খরচ না করেও উজ্জ্বল মসৃণ ত্বক পাওয়ার সবচেয়ে সহজ পথ এটাই! পর্যাপ্ত জল না খেলে ত্বক বিবর্ণ, শুষ্ক আর ক্লান্ত দেখাবে। তাই ত্বক থেকে টক্সিন বের করে দিতে প্রতিদিন তিন থেকে চার লিটার (বড় গেলাসের 7-8 গেলাস) জল খান। তাতে ত্বকের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে, ত্বক ভেতর থেকে আর্দ্রও থাকবে।

 

02. পুষ্টিকর খাওয়াদাওয়া করুন

02. পুষ্টিকর খাওয়াদাওয়া করুন

আপনার শরীরের ভেতরে কী ঢুকছে তারই প্রতিফলন ঘটে আপনার ত্বকে। স্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়া করলে ত্বক জরুরি পুষ্টি পায়, ফলে উজ্জ্বল আর স্বাস্থ্যবান দেখায়। সুস্থ উজ্জ্বল ত্বক পেতে রোজ খান সবুজ শাকসবজি, বাদাম আর প্রোটিনজাতীয় খাবার।

 

03. ভালো করে ঘুমোন

03. ভালো করে ঘুমোন

ঘুমের ব্যাপারে আমরা সবচেয়ে কম নজর দিলেও ত্বকের সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে ঘুমের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ! আপনি যখন ঘুমোন, আপনার ত্বক সেসময় নতুন করে উজ্জীবিত হয়ে ওঠে। এইজন্যই সারা রাত জাগার পর ত্বক ক্লান্ত আর নিষ্প্রাণ দেখায়। তাই প্রতি রাতে অন্তত 8 ঘণ্টা ঘুমোনোর চেষ্টা করুন। আর পরেরবার রাত জাগার আগে একবার ভেবে নেবেন রাতে না ঘুমোলে আপনার ত্বকের কতটা ক্ষতি হয়!

 

04. নিয়মিত ব্যায়াম করুন

04. নিয়মিত ব্যায়াম করুন

জিমে যাওয়ার আর একটা কারণ খুঁজছেন? আমরা বলে দিচ্ছি - জিমে গেলে শরীরের পাশাপাশি আপনার ত্বকও সুস্থ থাকবে। ব্যায়াম করলে শরীরে ঘাম হয়, সেই গঘামের মধ্যে দিয়ে সমস্ত টক্সিন বেরিয়ে যায়। ফলে ত্বকের বন্ধ হয়ে থাকা রোমছিদ্র খুলে যায়, ব্রণ বেরোতে পারে না। তা ছাড়া ব্যায়াম করলে রক্ত সঞ্চালন ব্যবস্থার উন্নতি হয়, ত্বকে নতুন কোষের জন্ম হয় এবং বয়সের ছাপ মুখে পড়তে পারে না! নিয়মিত ব্যায়াম করলে রেটিনল ব্যবহারের মতোই ফল পাবেন।

 

05. মানসিক চাপ মুক্ত থাকুন

05. মানসিক চাপ মুক্ত থাকুন

স্ট্রেস বা মানসিক চাপ শরীরে হরমোনের প্রাবল্য বাড়িয়ে তোলে। এর ফলে সেবেসাস গ্রন্থিগুলো অতিরিক্ত সক্রিয় হয়ে ওঠে এবং বেশি বেশি করে তেল উৎপাদন করে, যা ব্রণ বেরোনোর কারণ। তাই নিখুঁত সুন্দর ত্বক পেতে লাগাম পরান আপনার মানসিক চাপে। মন শান্ত রাখতে আর হরমোন নিয়ন্ত্রণে রাখতে যোগব্যায়াম, মেডিটেশন এবং অন্যান্য ব্যায়াম করুন। তাতে আপনার ত্বকও থাকবে জেল্লাদার, স্বাস্থ্যের দীপ্তিতে ভরপুর!