প্রতিদিনই আমাদের সকলকে কলেজে বা অফিসে বেরোতে হয়। নিয়মিতভাবে রাস্তাঘাটে চলাফেরা করার পরিশ্রম আমাদেরই তো ক্লান্ত করেই, আমাদের ত্বকেও ক্লান্তির ছাপ এনে দেয়। তাই দিনের শেষে সেই একঘেয়ে পুরোনো ফেসওয়াশ নয়, আমাদের ত্বকের চাই বাড়তি আরও অন্য কিছু।

প্রতিদিনের ক্লান্তিকর যাতায়াতের পরে ক্লান্ত ত্বকের পরিচর্যা করতে আপনার চাই এই ৫ টি জিনিস, যা ত্বককে নতুন করে তরতাজা করে তুলবে।

ডিটক্স মাস্ক ব্যবহার করুন
ভালো ফেশিয়াল ক্লেনজ়িং ব্রাশ কিনুন
সঙ্গে  রাখুন ফেশিয়াল মিস্ট বা ওয়েট ওয়াইপস

পর্যাপ্ত সানস্ক্রিন
 

পর্যাপ্ত সানস্ক্রিন

বাড়ির বাইরে গেলে আপনার ত্বকে রোদ লাগে, সেইসঙ্গে আলট্রা ভায়োলেট রশ্মিও। বাড়ি থেকে বেরোনোর আগে পর্যাপ্ত এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন মেখে নিন। সানস্ক্রিন শুধু আপনার ত্বকের ট্যানিংই প্রতিরোধ করে না, এটি ইউভিএ (UVA) রশ্মির প্রভাবে অকালে চামড়া কুঁচকে যাওয়ার যে প্রবণতা দেখা যায়, তার বিরুদ্ধেও কাজ করে |

স্কার্ফ আপনার সেরা বন্ধু
স্কুটার, গাড়ি, বাস, যেমন পরিবহনেই চড়ুন, স্কার্ফ ব্যবহার করতে ভুলবেন না। স্কার্ফ আপনার মুখে সরাসরি ধুলোবালি লাগতে দেয় না। এটি আপনার ত্বককে দূষণের কবল থেকে বাঁচিয়ে রাখে।|

ডিটক্স মাস্ক
 

ডিটক্স মাস্ক

অতি অবশ্যই সপ্তাহে অন্তত একবার বা দু’বার ডিটক্স মাস্ক ব্যবহার করুন। চেষ্টা করুন অ্যাকটিভেটেড চারকোল মাস্ক বা বেনটোনাইট ক্লে মাস্ক ব্যবহার করতে। এই মাস্ক আপনার ত্বকের ছিদ্রে আটকে থাকা ধুলোময়লা টেনে বার করে আনতে সাহায্য করে। খেয়াল রাখবেন, যাতে এই মাস্ক ধুয়ে ফেলার পরে ভালো করে ত্বকে ময়শ্চারাইজার লাগানো হয়।

ভালো ফেশিয়াল ক্লেনজ়িং ব্রাশ কিনুন
 

ভালো ফেশিয়াল ক্লেনজ়িং ব্রাশ কিনুন

মুখ ধোওয়ার সময় রোমছিদ্রে জমে থাকা ধুলোবালি সহজে বের হয় না। মুখ পরিষ্কার রাখতে রোটেটিং ফেস ব্রাশ কিনুন ও রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে তা দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। এই ব্রাশটি আপনার মুখের ত্বকের ছিদ্রে

আটকে থাকা সব ধুলোময়লা সহজেই পরিষ্কার করে দেবে |
 

আটকে থাকা সব ধুলোময়লা সহজেই পরিষ্কার করে দেবে |

সঙ্গে  রাখুন ফেশিয়াল মিস্ট বা ওয়েট ওয়াইপস
দিনের যে কোনও সময়ে মুখ মুছে তরতাজা ভাব আনতে সেরা জিনিসটি হল  ফেশিয়াল মিস্ট আর ওয়েট ওয়াইপস। ব্যাগে রাখুন ট্রাভেলসাইজ় মিস্ট আর যখনই মনে হবে ত্বক শুকনো আর নিষ্প্রাণ লাগছে, এটি ব্যবহার করুন। যদি বাজার থেকে ফেশিয়াল মিস্ট কিনতে না চান, ঘরেই বানিয়ে নিন গোলাপজল আর অ্যালো ভেরা জেল দিয়ে। অ্যালো ভেরা ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলে আর গোলাপজল আপনার ত্বকের পুষ্টির জোগান দেয়।