বৃষ্টি পড়বে পড়বে মনে হলেই এতদিন ধরে গড়ে তোলা সাধের স্কিনকেয়ার রুটিন সব যেন বরবাদ হয়ে যায়! আমরা যত চেষ্টাই করি না কেন, আমাদের ত্বক যেন নিজের খেয়ালখুশি মতো চলতে শুরু করে, বিশেষ করে বর্ষার দিনে। সকালে ঘুম থেকে উঠতেই হয় তেলতেলে মুখ, না হলে চটচটে টি জোন আমাদের সঙ্গী হয়ে যায়, আর সে ব্যাপারটা মোটেও ভালো না! তেলতেলে ত্বকের পিছু পিছু আসে বন্ধ রোমছিদ্র আর ব্রণ। আর কিছু বলার দরকার আছে কি?

তেলতেলে ত্বকের মোকাবিলা কীভাবে করবেন সেটা বলার আগে একটু গোড়ার কথা বলা দরকার। তেলতেলে ত্বক কেন হয়? আমাদের প্রত্যেকেরই ত্বকে সেবাম-উৎপাদনকারী একধরনের গ্রন্থি আছে, যাকে সেবেশাস গ্ল্যান্ড বলা হয়। ত্বকের ওপর একটি সুরক্ষার আস্তর তৈরি করে ত্বককে আর্দ্র রাখে এই গ্ল্যান্ড। কিন্তু মাঝেমাঝে এই গ্রন্থি অতি সক্রিয় হয়ে ওঠে। এই সক্রিয়তা যেমন জিনগত কারণে হতে পারে, তেমনি হরমোন এবং পরিবেশগত কারণেও হতে পারে। এই মুহূর্তে আমরা আলোচনা করব পরিবেশগত কারণ, অর্থাৎ বর্ষাকাল নিয়ে।

বর্ষা মানেই বাতাসে চড়া আর্দ্রতা। আবার আর্দ্রতায় ভরা বর্ষা মানেই ঘাম শুকোতে চায় না, ফলে ত্বক তেলতেলে হয়ে যায়। অত্যন্ত বিরক্তিকর এই সমস্যার মোকাবিলা করতে রইল কিছু সহজ টিপস যা মেনে চললে আপনার মুখ আর চটচটে তেলতেলে ব্রণর আখড়া হয়ে থাকবে না। দেখে নিন নিজেই।

 

 

বারবার মুখ ধোবেন না

বারবার মুখ ধোবেন না

অনেক সময় মুখ এতটাই তেলতেলে হয়ে যায় যে ঘণ্টায় ঘণ্টায় বারবার মুখ ধুতে ইচ্ছে করে, না হলে সামাল দেওয়া যায় না। কিন্তু সেটা সবচেয়ে বড় ভুল। অতিরিক্ত মুখ ধুলে সেবেশাস গ্ল্যান্ড আরও সক্রিয় হয়ে ওঠে এবং আরও বেশি করে সেবাম বেরোতে থাকে। তাই কড়া ক্লেনজার কখনও ব্যবহার করবেন না, বরং ফোমিং ক্লেনজার ব্যবহার করুন য তেল সাফ করার পাশাপাশি ব্রণরও মোকাবিলা করতে পারে। এ ব্যাপারে আমাদের প্রথম পছন্দ সিম্পল ডেইলি স্কিন ডিটক্স পিউরিফায়িং ফেসিয়াল ওয়াশ/ Simple Daily Skin Detox Purifying Facial Wash । এটি মুখে জমে থাকা মৃত কোষ সরায়, বাড়তি তেলময়লা সাফ করে রোমছিদ্র বন্ধ হয়ে ব্রণ বেরোনো রুখে দেয়, এবং বর্ষার কারণে তৈরি হওয়া মুখের চটচটেভাব অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। পাশাপাশি এই ক্লেনজারটি অ্যালকোহল ও স্যালিসাইলিক অ্যাসিডের মতো মুখ শুকনো করে দেওয়ার উপাদান নেই। জিঙ্ক, উইচ হ্যাজেল, থাইমে সমৃদ্ধ এই ক্লেনজারটি সবধরনের ত্বকের উপযোগী।

 

পালটে ফেলুন খাওয়াদাওয়া

পালটে ফেলুন খাওয়াদাওয়া

বৃষ্টির বিকেলে চা-সিঙাড়া বা চপমুড়ি খাওয়ার বিকল্প নেই। কিন্তু ত্বক, তথা শরীরের সার্বিক স্বাস্থ্য ধরে রাখতে এই অভ্যেস একটু পালটাতেই হবে। আমরা যা খাই, তা আমাদের ত্বকে প্রতিফলিত হয়। ভাজাভুজিতে ওমেগা-সিক্স ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে, অতিরিক্ত ওমেগা-সিক্স ত্বকের অবস্থা খারাপ করে দেয়, বর্ষায় তা আরও খারাপ হয়ে যেতে পারে। তাই বর্ষায় হালকা, স্বাস্থ্যকর খাবার খান, এবং ত্বকের ওপর তফাতটা দেখুন।

 

মাস্ক লাগান

মাস্ক লাগান

খাওয়াদাওয়া বদলালেন, মুখ দিনে দু'বার ধোওয়ার অভ্যেস করলেন। এ ছাড়া আর কী করা যায়? কিছু কিছু ক্ষেত্রে বাড়তি যত্নের প্রয়োজন, আর সে ক্ষেত্রে আপনার দরকার ফেস মাস্ক। তেলতেলে ত্বক সামলানোর জন্য সঠিক মাস্ক খুঁজে পাওয়া কঠিন হতে পারে। বিশেষ করে কিছু মাস্ক ত্বক শুষ্ক করে দেয় এবং তার ফলে ত্বক আখেরে বেশি তেলা হয়ে পড়ে। এই দুটো ব্যাপারই আমাদের এড়িয়ে চলতে হবে। বেছে নিন ডার্মালজিকা সেবাম ক্লিয়ারিং মাস্ক/ Dermalogica Sebum Clearing Masque. । এই মাস্ক ব্রণ কমায়, ত্বক স্নিগ্ধ রাখে, অতিরিক্ত তেল শুষে নেয় এবং ত্বক পরিশুদ্ধ রাখে। সপ্তাহে তিনবার ব্যবহার করুন। টি-জোনে মাস্ক লাগিয়ে 7-10 মিনিট রাখুন, আর দেখুন কীভাবে ম্যাজিকের মতো ভোল বদলে যায় ত্বকের।