প্রকৃতি মনে হয় মেয়েদের ব্যাপারে কিছু কিছু ক্ষেত্রে বেশ অকরুণ! মাসের বিশেষ কয়েকটা দিন যেমন ব্যথা ভোগ করতেই হয়, তেমনি কিছু কিছু রূপচর্চার পদ্ধতিতেও বেশ ব্যথা লাগে। ভুরু প্লাক করার সময়ই হোক, বা ব্ল্যাকহেডস তোলাই হোক, ব্যথা লাগবেই! বেশিরভাগ মেয়ে এই ব্যথার সঙ্গে মানিয়ে নিলেও অনেকেই ওয়্যাক্সিংয়ের ব্যথা সহ্য করতে পারেন না এবং তাঁরা ওয়্যাক্সিংকে পুরোপুরি এড়িয়ে যান। হাতপায়ের অবাঞ্ছিত রোম তোলার জন্য শেভিংয়ের ওপরেই ভরসা করেন তাঁরা। সুখের কথা, আমরা খুঁজে বের করেছি এমন পাঁচটি কৌশল যাতে ওয়্যাক্সিংয়ের ব্যথাকে বিদায় জানাতে পারবেন আপনি, আর ত্বক হয়ে উঠবে রোমহীন, মসৃণ আর ঝকঝকে...
 

ত্বক এক্সফোলিয়েট করুন

ত্বক এক্সফোলিয়েট করুন

ওয়্যাক্সিং সেশনের পুরো ফায়দা উসুল করতে এবং একই সঙ্গে ব্যথার অনুভূতি কমাতে হলে আগে থেকে ত্বক এক্সফোলিয়েট করে নিন। সেন্ট ইভস রেডিয়্যান্ট স্কিন পিঙ্ক লেমন অ্যান্ড ম্যান্ডারিন অরেঞ্জ এক্সফোলিয়েটিং বডি ওয়াশ/ St. Ives Radiant Skin Pink Lemon & Mandarin Orange Exfoliating Body Wash আপনার ত্বকের উপরে জমে থাকা মৃত কোষগুলো কোমলভাবে তুলে দিয়ে হেয়ার ফলিকলগুলোকে এক্সফোলিয়েট করবে, ফলে ওয়্যাক্সিংয়ের ব্যথা অনেক কম অনুভব করবেন।

 

শেভ করবেন না

শেভ করবেন না

ওয়্যাক্সিং করার কিছুদিন পরে গজিয়ে ওঠা ছোট ছোট রোমগুলো শেভ করে ফেলার ইচ্ছে হওয়াটা খুব স্বাভাবিক। কিন্তু আমাদের পরামর্শ যদি শোনেন, এ কাজ করবেন না কারণ তাতে আপনার রোমের স্বাভাবিক বৃদ্ধির চক্রটা নষ্ট হয়ে যাবে এবং ওয়্যাক্সিং আরও বেদনাদায়ক হয়ে উঠবে। রোম অন্তত 1/4 ইঞ্চি বড় হলে তবেই ফের পার্লারে ওয়্যাক্সিংয়ের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেবেন।

 

পেশাদারের কাছে যান

পেশাদারের কাছে যান

ওয়্যাক্সিং করা দেখতে বেশ সহজ। প্রথমে ওয়্যাক্স লাগানো, তার পর স্ট্রিপ চেপে দেওয়া আর রোমের বৃদ্ধির অভিমুখের উলটোদিকে টেনে তুলে ফেলা। কিন্তু এমনিতে সহজ মনে হলেও এর মধ্যে অনেকগুলো ব্যাপার রয়েছে যা আপনার জানা নেই। প্রথমত প্রত্যেকের রোম একই অভিমুখে গজায় না, তা ছাড়া ওয়্যাক্সিং থেকে সেরা ফল পেতে তাপমাত্রারও একটা ভূমিকা থাকে। তাই ওয়্যাক্সিং করার জন্য সবসময় ল্যাকমে সালোনের পেশাদার বিশেষজ্ঞদের কাছেই যান, তাতে পুড়ে যাওয়া, ফুসকুড়ি এবং অন্যান্য বিপর্যয় এড়াতে পারবেন।

 

স্নান করে নিন

স্নান করে নিন

ওয়্যাক্সিং করতে বসার আগে হালকা গরম জলে স্নান করে নিলে ত্বকের রোমছিদ্রগুলো খুলে যাবে, রোমও নরম হয়ে যাবে। তখন ওয়্যাক্সিং করলে আর তত ব্যথা লাগবে না। তবে ইচ্ছে করলেও ঠান্ডা জলে স্নান করবেন না, কারণ তাতে রোমছিদ্রগুলো আরও সংকুচিত হয়ে গিয়ে প্রক্রিয়াটা আরও বেদনাদায়ক হয়ে উঠবে।

 

ঋতুচক্রের কথা মাথায় রাখুন

ঋতুচক্রের কথা মাথায় রাখুন

ওয়্যাক্সিংয়ের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেওয়ার আগে আপনার ঋতুচক্রের কথাটা মাথায় রাখুন। পিরিয়ড চলাকালীন আপনার ব্যথা সহ্য করার ক্ষমতা সবচেয়ে কম থাকে, তাই এই সময় ওয়্যাক্সিং করাবেন না। পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর কিছুদিন অপেক্ষা করে তবেই ওয়্যাক্স করুন, তাতে ব্যথা অনেকটাই কম বোধ করবেন।