শুরুটা হয়েছিল আর পাঁচটা বিউটি ট্রেন্ডের মতোই, কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই ত্বক পরিচর্যার জগতে পাকাপাকি জায়গা করে নিতে পেরেছে শিট মাস্ক। শক্তিশালী ও কার্যকর সিরামে ভেজানো এই মাস্ক ত্বকে খুব দ্রুত আর সহজে আর্দ্রতা পৌঁছে দিতে পারে। কিন্তু প্রায়ই শিট মাস্ক বের করে নেওয়ার পরেও প্যাকেটের মধ্যে অনেকটা সিরাম থেকে যায়! তা হলে ওই বাড়তি সিরামটুকু ব্যবহার করার কি কোনও উপায় নেই? অবশ্যই আছে! জেনে নিন 5টি স্মার্ট উপায় যার সাহায্যে শিট মাস্কের সবটুকু সিরামই কাজে লাগাতে পারবেন আপনি।

সে প্রসঙ্গে যাওয়ার আগে একটা প্রশ্ন: ত্বকের সমস্যা সমাধানের জন্য সঠিক শিট মাস্ক খুঁজছেন কি আপনি? সে ক্ষেত্রে আমাদের সুপারিশ হল পন্ড'স ব্রাইটেনিং শিট মাস্ক উইথ ভিটামিন সি অ্যান্ড 100% ন্যাচারাল পাইন্যাপল/ Pond’s Brightening Sheet Mask With Vitamin C and 100% Natural Pineapple । সিরাম ভিটামিন আর প্রাকৃতিক আনারসের নির্যাসযুক্ত এই শিট মাস্কটি ত্বকে আনে চটজলদি দীপ্তি। এই মাস্কটি অ্যালকোহল ও প্যারাবেনমুক্ত, ত্বক বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরীক্ষিত এবং 100% বায়োডিগ্রেডেবল কাপড় দিয়ে তৈরি। এর পরেও এই শিট মাস্ক পছন্দ না হয়ে উপায় আছে?

 

01. ফেসিয়াল মাসাজ

01. ফেসিয়াল মাসাজ

মুখে 20-30 মিনিট মাস্ক লাগিয়ে রাখার পর মুখ থেকে শিট তুলে নিন, তারপর প্যাকেটে থেকে যাওয়া সিরাম হাতের তালুতে নিয়ে সারা মুখে লাগিয়ে মিনিট পাঁচেক মাসাজ করুন। এতে ত্বক বাড়তি সিরাম শুষে নেবে, পাশাপাশি মুখে পাবেন এক উজ্জ্বল দীপ্তি।

 

02. গলায় লাগিয়ে নিন

02. গলায় লাগিয়ে নিন

শুধু মুখেই সিরামে ভেজা শিট মাস্ক লাগালে হবে না, গলাতেও নজর দিতে হবে। প্যাকেটের বাড়তি সিরাম নিয়ে ভালো করে গলায়, কণ্ঠায়, কাঁধের কাছে লাগিয়ে নিন।

 

03. শরীরের শুষ্ক অংশে মাখুন

03. শরীরের শুষ্ক অংশে মাখুন

শরীরের বাকি অংশে ময়শ্চারাইজারের মতো করে মেখে নিন প্যাকেটের বাকি সিরামটুকু। কনুই, হাঁটু, হাত, হাতের পাতায় সিরাম লাগিয়ে হালকা মাসাজ করুন। এভাবে রেখে দিতে পারেন, আবার সারাদিন সিরাম লাগিয়ে রাখতে ইচ্ছে না করলে 15-20 মিনিট পর ধুয়ে ফেলে ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে পারেন।

 

04. ঘরোয়া মিস্ট

04. ঘরোয়া মিস্ট

বাড়িতে ঘরোয়া ফেস মিস্ট তৈরি করার সবচেয়ে সহজ উপায় এটাই। শিট মাস্কের প্যাকেট থেকে বাড়তি সিরাম বের করে নিন। একটা স্প্রে বোতলে ঢেলে তাতে কিছুটা ডিস্টিলড ওয়াটার মেশান। বেশ করে ঝাঁকিয়ে নিন যাতে সিরাম আর জল ভালোভাবে মিশে যায়। আপনার মিনি ফেসিয়াল মিস্ট তৈরি, এবার ব্যবহার করুন ইচ্ছেমতো!

 

05. প্রি-মেকআপ রিমুভার

05. প্রি-মেকআপ রিমুভার

বাড়তি তরল একটা প্যাকেটে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। পরেরবার মেকআপ তোলার সময় তুলোয় করে বা আঙুলে কিছুটা সিরাম নিয়ে ত্বকে মাসাজ করে নিন। তরল মেকআপের প্রথম আস্তরণটা গলিয়ে দেবে। এরপর মিসেলার ওয়াটার বা ক্লেনজার দিয়ে বাকি মেকআপ ভালোভাবে তুলে ফেলুন।