আপনার ত্বকের পক্ষে শীতকাল বেশ কঠিন ঋতু| খুব তাড়াতাড়ি ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়ার প্রবণতা থাকে এবং হয়তো আপনি নিজেই তার জন্য দায়ী| সম্ভবত স্নানের সময়ে এমন কিছু ভুলভ্রান্তি ঘটছে, যে আপনার ত্বক অতিরিক্ত শুষ্কতার শিকার হচ্ছে|

এখানে কিছু খুব সহজ পরামর্শ দেওয়া হল, যাতে আপনি ত্বককে শীতের শুষ্কতা থেকে রক্ষা করতে পারেন আর আপনার ত্বক থাকে উজ্জ্বল আর তরতাজা|

shower tips01

পরামর্শ ১  :   অতিরিক্ত গরম জলে স্নান করবেন না কারণ তা আপনার ত্বকের সমস্ত আর্দ্রতা দূর করে দেবে| গরম জল আপনার ত্বক থেকে নিঃসৃত সমস্ত প্রয়োজনীয় তেল ধুয়ে ফেলে আপনার ত্বককে অতিরিক্ত শুষ্ক করে দেয়| ঈষদুষ্ণ জলে স্নান করুন আর কখনওই খুব বেশিক্ষণ ধরে গরম জলে স্নান করবেন না| স্নানের জন্য বরাদ্দ রাখুন ৫ থেকে ১০ মিনিট সময়|

পরামর্শ ২  : সালফেট-ফ্রি স্নানের সাবান আর জেল ব্যবহার করুন| সালফেট আপনার ত্বককে শুষ্ক করে দেয় আর বেশি সময় ধরে এটির ব্যবহারে ত্বকে একজ়িমা হতে পারে| সাবানে সালফেট থাকলে আপনার ত্বকের টেক্সচার নষ্ট হয়ে যায় এবং তা রুক্ষ আর নিষ্প্রাণ দেখায় |    

পরামর্শ ৩  :   খুব ঘন ঘন ত্বক এক্সফোলিয়েট বা স্ক্রাব করবেন না কারণ তাতে ত্বকে সামান্য ছোট ছোট কাটাছেঁড়া হতে পারে, যা আরও বেশি শুষ্কতার কারণ হবে| অতিরিক্ত এক্সফোলিয়েশন অনেক সময়ে ত্বক থেকে স্বাভাবিক তেল দূর করে দেয়, যার ফলে শুষ্কতা আরও বেড়ে গিয়ে ত্বকের অবস্থার অবনতি হয়|

পরামর্শ ৪   :  সাবান ব্যবহারের পরে তা খুব ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন| যদি ত্বকে সাবান লেগে থাকে, তাহলে ত্বক রুক্ষ হয়ে ওঠে এমনকী চুলকুনি হতে পারে| সাবানে রাসায়নিক পদার্থ থাকে, যা আপনার ত্বকে লেগে থাকলে অত্যন্ত ক্ষতিকর হয়ে উঠতে পারে|


পরামর্শ ৫   :  স্নানের পরে  খসখসে তোয়ালে ব্যবহার না করাই ভালো| কারণ স্নানের ঠিক পরে-পরেই আপনার ত্বক কোমল আর সংবেদনশীল অবস্থায় থাকে| তার বদলে বেছে নিন নরম, মোলায়েম তোয়ালে আর আলতো হাতে চেপে চেপে শুকনো করে গা মুছে নিন| তোয়ালে দিয়ে সম্পূর্ণ শুকনো করে গা মুছে ফেলবেন না, সামান্য জল গায়ে থাকুক, ত্বক তা আপনিই শুষে নেবে|

পরামর্শ ৬  :   স্নানের পরে সব সময় ভালো ময়েশ্চারাইজ়ার ব্যবহার করুন, যাতে আপনার ত্বকের ছিদ্রগুলি ময়েশ্চারাইজ়ারে থাকা পুষ্টি-উপাদানগুলি ঠিকঠাক শুষে নিতে পারে| ঈষদুষ্ণ জলে স্নানের পরেই যেহেতু ছিদ্রগুলির এই শোষণ-ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি থাকে, তাই ত্বকের পক্ষে উপযোগী সবচেয়ে পুষ্টিকর ময়েশ্চারাইজ়ার বেছে নিন, যাতে আছে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুষ্টিগুণ আর ভিটামিন|

পরামর্শ ৭  :   সপ্তাহে অন্তত একবার আপনার পুরো শরীর তেল দিয়ে ভালোভাবে মালিশ করুন, যাতে ত্বক সম্পূর্ণ পুষ্টি আর প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা পায়| এটি ত্বকে তৈলাক্ত উপাদানের স্বাস্থ্যকর স্বাভাবিক চক্রটি বজায় রাখে আর শুষ্ক আবহাওয়ায় আপনার ত্বকে বাড়তি জৌলুস আনে|