ত্বকের রঙের সামঞ্জস্যহীনতা বা অমসৃণতা কি আপনার সুন্দর হয়ে ওঠার পথে বাধা সৃষ্টি করছে? আপনি কিন্তু একা নন, এই সমস্যা বহু মহিলাকে বিব্রত করে। মুখের ত্বকে মসৃণতার অভাব হলে মন খারাপ হওয়ারই কথা| ঠোঁটের চারপাশের অংশে যখন এমনটা হয়, তা যেন বেশি করে চোখে পড়ে| আসলে মুখের এই অংশের ত্বকের প্রবণতাই হল দ্রুত আর্দ্রতা হারানো| তাই ঠোঁট আর চিবুকের আশেপাশের ত্বকের এমন অবস্থা হলে সারা মুখটাই যেন বেশি কালচে আর আকর্ষণহীন বলে মনে হয়| মন খারাপ তো লাগবেই!

ভাববেন না, আমরা আপনার জন্য নিয়ে এসেছি কয়েকটি প্রাকৃতিক সমাধান| এই ঘরোয়া টোটকাগুলির উপরে ভরসা রাখুন, আপনার ঠোঁট আর চিবুকের চারপাশের কালো গোল ছোপ মিলিয়ে যাবে|

লেবুর রস
 

লেবুর রস

লেবুর রসে উপস্থিত সাইট্রিক অ্যাসিড গাঢ় রঙের ত্বককোষ জন্মানো প্রতিরোধ করে এবং কালচে ছোপ সারিয়ে তোলে| সেই কারণেই স্বাভাবিক উপায়ে অর্থাৎ প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে ত্বক ‘ব্লিচ’ করতে লেবুর রস হল সেরা অপশন| আপনাকে শুধু একটি লেবুকে আধখানা করে কেটে নিতে হবে| আধখানা করে কাটা লেবুর টুকরোটি ঠোঁট আর চিবুকের চারপাশের ত্বকে হালকা হাতে 10-15 মিনিট ধরে ঘষুন| তারপর জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন|

ওটমিল স্ক্রাব
 

ওটমিল স্ক্রাব

স্বাভাবিক উপায়ে ফর্সা আর উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ওটমিল ব্যবহার করলে ম্যাজিকের মতো কাজ হয়| মৃত ত্বককোষ আর জমে থাকা নোংরা ধুলোময়লা ইত্যাদি এক্সফোলিয়েট করে এটি ত্বকের রঙে সামঞ্জস্য নিয়ে আসে| এই স্ক্রাবটি বানানোর জন্য আপনাকে ওটমিল, টোম্যাটোর রস আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করতে হবে। মিশ্রণটা ভালো করে সময় নিয়ে মুখে ঘষে ঘষে মাখুন| তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন|

পেঁপে
 

পেঁপে

পেঁপেতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ আর সি| পেঁপে আপনার ঠোঁটের আর চিবুকের চারপাশের কালচে হয়ে যাওয়া ত্বকের রঙে ভারসাম্য ফিরিয়ে আনে, দাগ-ছোপ হালকা করে দেয়| কয়েক টুকরো পেঁপে গোলাপজল দিয়ে বেটে থকথকে মিশ্রণ তৈরি করে নিন| এই মাস্কটি কালচে ত্বকে লাগিয়ে 30 মিনিট অপেক্ষা করে ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে ফেলুন|

আলু
 

আলু

আলুর ‘ব্লিচিং’-এর গুণ আপনার ত্বকের অবাঞ্ছিত পিগমেন্টেশন দূর করতে সাহায্য করে আর এটি সবচেয়ে ভালো কাজ করে সংবেদনশীল ত্বকে| ঠোঁট আর চিবুকের চারপাশের কালচে ছোপ দূর করতে মাঝারি মাপের একটি আলু দু’ ভাগ করে কাটুন| তারপর বৃত্তাকারে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ওই কাটা আলু দিয়ে মুখের কালচে অংশে হালকা হাতে মাসাজ করুন| মিনিট 20 মাসাজ করে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন|

হলুদ
 

হলুদ

হলুদ যে শুধু হাইপার পিগমেন্টেশন প্রতিরোধ করে, তাই-ই নয়, ত্বকের সূক্ষ্ম বলিরেখা আর কুঞ্চনও কমায়| এই মাস্কটি তৈরি করার জন্য একটি ছোট বাটিতে হলুদ গুঁড়ো আর গোলাপজলের মিশ্রণ বানিয়ে নিন| তারপর মাস্কটি ঠোঁট, চিবুকের আশপাশে যেখানে যেখানে কালচে ছোপ ধরেছে, সেখানে লাগান| 10-15 মিনিট রেখে ঈষদুষ্ণ জলে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন|