ফাটা, শুকনো, রুক্ষ - নিয়মিত ঠোঁটের যত্ন না নিলে এরকম অবস্থাই হয়! তবে নিয়মিত ঠোঁটের এক্সফোলিয়েট আর ময়শ্চারাইজ করার পরামর্শ দিলেও তা যে সবসময় করা সম্ভব নয়, সেটাও আমরা বুঝি! তাই আপনারা যাঁরা বেশিরভাগ সময়ই ব্যস্ততা আর ছোটাছুটির মধ্যে থাকেন, তাঁদের ঠোঁটের হাল ফেরানোর জন্য পাঁচটা সহজ উপায় জানিয়ে দিচ্ছি আমরা...

 

01. সঙ্গে রাখুন লিপ টিন

01. সঙ্গে রাখুন লিপ টিন

ঠোঁট সারাক্ষণ নরম আর মসৃণ রাখার উপায় হল লিপ বাম লাগিয়ে ঠোঁট আর্দ্র রাখা। প্রতিটি মেয়ের হ্যান্ডব্যাগে লিপ বাম থাকা মাস্ট! আমাদের পরামর্শ হল, সবসময় ভেসলিন লিপ থেরাপি কোকো বাটার টিন/ Vaseline Lip Therapy Cocoa Butter Tin সঙ্গে রাখুন! এই লিপ কেয়ার প্রডাক্টটি চিকিৎসাগতভাবে পরীক্ষিত এবং শুষ্ক ঠোঁটের যত্ন নিয়ে ঠোঁট প্রাকৃতিকভাবে স্বাস্থ্যবান আর চকচকে রাখে। এই লিপ টিনটি ঠোঁটে পুষ্টি আর আর্দ্রতা জুগিয়ে ঠোঁট নরম আর কোমল রাখে।

সবচেয়ে ভালো ব্যাপার হল এটি চটচটে বা তেলতেলে নয় এবং রোজকার ব্যবহারের জন্য আদর্শ। বিশেষভাবে নির্মিত এই লিপ টিনটিতে 100% খাঁটি সাদা পেট্রোলিয়াম জেলি রয়েছে যা ঠোঁটের গভীরে আর্দ্রতা ধরে রাখে। তাই সারাক্ষণ সঙ্গে রাখুন একে এবং ঠোঁট শুকনো লাগলেই লাগিয়ে নিন।

 

02. টাচ-আপের আগে ঠোঁট প্রস্তুত করে নিন

02. টাচ-আপের আগে ঠোঁট প্রস্তুত করে নিন

শুকনো চামড়া ওঠা ঠোঁটে লিপস্টিক লাগানো একদম উচিত নয়। তাই লিপস্টিক লাগানোর আগে বা ঠোঁটে কোনওরকম টাচ-আপের আগে ঠোঁট প্রস্তুত করে নেওয়া দরকার। তাতে লিপস্টিক মসৃণভাবে লাগাতে পারবেন, ঠোঁটও সুন্দর দেখাবে সারাক্ষণ। আঙুলে খানিকটা ভেসলিন লিপ থেরাপি অরিজিনাল টিন/ Vaseline Lip Therapy Original Tin  লাগিয়ে নিন, কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন যাতে তা ঠোঁটে পুরো মিশে যায়। তারপর পছন্দের লিপস্টিক পরে নিন।

 

03. শরীর ভেতর থেকে আর্দ্র রাখুন

03. শরীর ভেতর থেকে আর্দ্র রাখুন

ত্বক তরতাজা আর্দ্র রাখতে দিনে আট গেলাস জল খাওয়া দরকার। পাশাপাশি ঠোঁটের স্বাস্থ্য উন্নত করতেও জল খেতে হবে। পর্যাপ্ত জল না খেলে ত্বক আর ঠোঁট জলশূন্য হয়ে পড়বে, তাই সবসময় হাতের কাছে জলের বোতল রাখুন। তাতে ঠোঁট আর্দ্র থাকবে, নরম আর টসটসে দেখাবে।

 

04. জিভ দিয়ে ঠোঁট চাটবেন না

04. জিভ দিয়ে ঠোঁট চাটবেন না

জিভ দিয়ে ঠোঁট ভেজানোর অভ্যেস থাকে অনেকের, কিন্তু তাতে ঠোঁটের ক্ষতিই বেশি হয়। জিভ দিয়ে ঠোঁট চাটলে ঘর্ষণের কারণে ঠোঁটে জ্বালা করতে পারে এবং তার ফলে ঠোঁটের স্পর্শকাতর ত্বক কালো আর শুকনো হয়ে যেতে পারে। তাই ঠোঁট শুকনো লাগছে মনে হলেই লিপ বাম লাগান, তাতে ঠোঁট চাটার প্রবণতাটাও চলে যাবে।

 

05. পরিবেশের হাত থেকে ঠোঁট সুরক্ষিত রাখুন

05. পরিবেশের হাত থেকে ঠোঁট সুরক্ষিত রাখুন

পরিবেশের নানা ক্ষতিকর উপাদান, যেমন দূষণ, ধুলোবালি, অতিরিক্ত তাপমাত্রা ঠোঁটের কোমল ত্বকের ক্ষতি করতে পারে এবং তাতে ঠোঁট শুকিয়ে ফেটে যায়। সে জন্য বাড়ির বাইরে থাকার সময় ভেসলিন লিপ থেরাপি অ্যালো টিন/ Vaseline Lip Therapy Aloe Tin -এর মতো লিপ বাম লাগানো দরকার। এই লিপ বামের অ্যালো ভেরা আবহাওয়ার চরম পরিস্থিতিতেও ঠোঁটে আর্দ্রতা ধরে রেখে ঠোঁট নরম আর মসৃণ রাখে। ঠান্ডা বাতাস বা চড়া রোদ থাকলে স্কার্ফের মতো কাপড়ে ঠোঁট আড়াল করে রাখুন, তাতে রোদ বা ঠান্ডাজনিত ক্ষতি থেকে ঠোঁট সুরক্ষিত থাকবে।