যেদিন থেকে লকডাউন হয়েছে, ঘরের সব কাজের দায়িত্ব সেদিন থেকে নিতে হয়েছে নিজেকেই! কোভিড সংক্রমণের ভয়ে ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়েছে গৃহ সহায়িকাদের, ফলে সমস্ত কাজ করে নিতে হচ্ছে নিজেকেই! রান্না করা, বাসন মাজা থেকে শুরু করে কাপড় কাচা, ঘর মোছা, গাছে জল দেওয়ার মতো সমস্ত কাজের দায়িত্ব এখন আপনার দুটি হাতের উপর! ঘরের কাজ করার পাশাপাশি হাত বারবার সাবান দিয়ে ধুতে হচ্ছে, স্যানিটাইজার মাখতে হচ্ছে, সব মিলিয়ে হাতের দফা রফা! শুকনো, খসখসে হাত এখন আমাদের অনেকেরই সঙ্গী!

তবে একটু চেষ্টা করলেই কিন্তু হাত রুক্ষ কর্কশ হয়ে যাওয়া থেকে বাঁচাতে পারেন! রইল চারটি উপায়ের হদিশ!

 

01. মোটা গ্লাভস পরুন

01. মোটা গ্লাভস পরুন

হাত যাতে শুকনো, কর্কশ না হয়ে যায় বা না চুলকোয়, সেটা নিশ্চিত করতে একজোড়া মোটা বাসন মাজার গ্লাভস নিয়ে আসুন। বাসন মাজার সাবানের ডিটারজেন্ট আর জল একসঙ্গে মিলে আপনার হাতের ত্বকের সমস্ত আর্দ্রতা শুষে নিয়ে ত্বক ভীষণ রুক্ষ করে দিতে পারে। হাতে গ্লাভস পরা থাকলে এ সব ক্ষতিকর উপাদান সরাসরি ত্বকের সংস্পর্শে আসতে পারবে না, ত্বক তুলতুলে নরম থাকবে।

 

02. এড়িয়ে চলুন গরম জল

02. এড়িয়ে চলুন গরম জল

হাত শুকনো আর খসখসে হয়ে যাওয়া এড়ানোর আর একটা দারুণ উপায় হল গরম জল ব্যবহার না করা। রুম টেম্পারেচারের জল ব্যবহার করুন, অথবা খুব হালকা গরম জল চলতে পারে। গরম জল প্রচণ্ড আর্দ্রতা শুষে নেয়, ফলে গরম জল দিয়ে ঘরের কাজ করলে আপনার হাত খুব দ্রুত শুষ্ক আর রুক্ষ হয়ে যাবে, হাতের ত্বক থেকে শুকনো আঁশের মতো চামড়া ওঠাও বিচিত্র নয়!

 

03. হ্যান্ড ক্রিম মাখুন

03. হ্যান্ড ক্রিম মাখুন

প্রতিবার হাত ধোওয়ার পর হ্যান্ড ক্রিম মাখা দরকার। তবে সত্যিটা হল, প্রতিবার হাত ধোওয়ার পরে ক্রিম মাখার কথা আমাদের মনে থাকে না! তাই প্রতিবার না হলেও দিনে বেশ কয়েকবার এমন হ্যান্ড ক্রিম অবশ্যই মাখা দরকার যা হাতের ত্বকে পুষ্টি সঞ্চার করবে। বেছে নিন  Dove DermaSpa Cashmere Comfort Hand Cream । নানাধরনের তেলের নির্যাস আর সেল ময়শ্চারাইজারে সমৃদ্ধ এই ক্রিম দ্রুত ত্বকে শুষে যায় এবং ত্বকের গভীরে পৌঁছে দারুণ রুক্ষ আর কর্কশ হাতকেও সারিয়ে তুলতে পারে।

 

04. হাত ভালো করে মুছে নিন

04. হাত ভালো করে মুছে নিন

হাতে আঙুলের খাঁজে সাবান আর জল আটকে থাকতে পারে। আঙুলে আংটি থাকলে তার নিচেও জল জমে থাকার ভয় থাকে। এতে ত্বক খুব শুকনো হয়ে যায়, এমনকী ত্বকে সংক্রমণও হতে পারে। ফলে প্রতিবার হাত ধোয়ার পর বা সাবান জল দিয়ে ঘরের কাজ করার পর হাত খুব ভালো করে মুছে নিন, তাতে এই সমস্যা দূরে থাকবে।