কোনও মানুষের ত্বকের ধাঁচ বোঝা নেহাত সহজ কাজ নয়। আমরা অনেকে তো বুঝতেই পারি না, আমাদের ত্বকের ধরন ঠিক কেমন! কোনও কোনও জায়গার ত্বক মনে হয় তৈলাক্ত, আবার কোনও কোনও জায়গা যেন অতিরিক্ত শুষ্ক। এই ধরনের বিচিত্র ত্বকই হল মিশ্র ধাঁচের ত্বক বা কম্বিনেশন স্কিন। জেনে নিন, এই ধরনের ত্বকের ক্ষেত্রে কেমন করে পরিচর্যা করা জরুরি।

নিচে ধাপে ধাপে মিশ্র ধাঁচের ত্বকের পরিচর্যার কথা জানানো হল...

ব্যালেন্সিং ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন
টোনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না
মিশ্র ধাঁচের বা কম্বিনেশন ত্বকের জন্য চাই বিভিন্ন ধরনের মাস্ক

ব্যালেন্সিং ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন
 

ব্যালেন্সিং ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন

মিশ্র ধাঁচের বা কম্বিনেশন ত্বকের জন্য ব্যবহার করুন ময়শ্চার ব্যালেন্সিং ফেসওয়াশ। এটি আপনার ত্বকের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে আর ত্বককে অতিরিক্ত শুষ্ক বা তৈলাক্ত হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। যদি ফেসওয়াশের ব্যাপারে নিশ্চিত না থাকেন, তাহলে পোর ক্লেনজ়িং ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন, কারণ এই ধরনের ফেসওয়াশ ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে পরিষ্কার করে এবং তেলজাতীয় পদার্থ ভালোভাবে দূর করে দেয়। ব্যবহার করে দেখতে  পারেন ল্যাকমে ব্লাশ অ্যান্ড গ্লো স্ট্রবেরি জেল ফেসওয়াশ।

টোনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না
 

টোনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না

নিয়মিত প্রতিদিন মুখ টোন করুন। রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মুখের টোনিং করবেন কারণ টোনিং আপনার ত্বকের তৈলাক্ত অংশের ভারসাম্য রক্ষা করতে এবং ত্বকের ম্যাড়মেড়ে ভাব কমাতে সহায়তা করে।

মিশ্র ধাঁচের বা কম্বিনেশন ত্বকের জন্য চাই বিভিন্ন ধরনের মাস্ক
 

মিশ্র ধাঁচের বা কম্বিনেশন ত্বকের জন্য চাই বিভিন্ন ধরনের মাস্ক

মুখের বিভিন্ন অংশের জন্য বিভিন্ন মাস্ক ব্যবহার করুন। যদি আপনার টি-জ়োনটির বেশি তৈলাক্ত হওয়ার প্রবণতা থাকে, তা হলে ব্যবহার করুন ম্যাটিফাইং মাস্ক। যদি গাল দুটিকে মনে হয় অনুজ্জ্বল, আপনার তা হলে প্রয়োজন গ্লো মাস্ক। বিভিন্ন অংশের জন্য বিভিন্ন মাস্ক ব্যবহার করে সেই অংশটির খামতি ঢেকে দিন।

এছাড়াও ব্যবহার করুন বিভিন্ন রকমের মেকআপ

ত্বকের বিভিন্ন অংশের জন্য আপনার চাই বিভিন্ন বেস প্রোডাক্ট। যদি কোনও অংশ অতিরিক্ত তৈলাক্ত হয়, সেই অংশটি ঠিক করে নিন পাউডার ফাউন্ডেশন ব্যবহার করে। যদি কোনও কোনও জায়গা মনে হয় বড়ো বেশি শুষ্ক, তাহলে তা এড়াতে ফাউন্ডেশনের সঙ্গে মিশিয়ে নিন