চুল কার্ল করার কাজটা বেশ দীর্ঘ আর ক্লান্তিকর প্রক্রিয়া, তাতে সন্দেহ নেই! সে জন্য যতবার চুল কার্ল করার সিদ্ধান্ত নেন, ততবার হয় ঘুম থেকে উঠতে দেরি হয়ে যায়, আর নয়তো গোটা আইডিয়াটাই মুলতুবি করে দিতে হয়! পরিস্থিতিটা চেনা চেনা লাগছে? আমাদের কাছে কিন্তু ব্যাপারটা খুবই পরিচিত! আর এরকম সময়ে মনে হয় যদি হাতে একটা জাদুকাঠি থাকত, তা হলে নিমেষেই চুলটা কার্ল করে নিতে পারতাম। /

চুল কার্ল করতে গিয়ে লম্বা সময় নষ্ট না করতে চাইলে আমাদের কাছে আছে একটা দারুণ উপায়। এই কৌশলটা মেনে চললে স্বপ্নের কার্ল পাবেন নিমেষেই! শিখে নিন পাঁচ মিনিটের হেয়ার কার্লিং কৌশল আর বদলে ফেলুন আপনার লুক!

 

চিরুনি বা হেয়ার ব্রাশ হেয়ার টাই

চিরুনি বা হেয়ার ব্রাশ হেয়ার টাই

ধাপ 1: চিরুনি বা হেয়ার ব্রাশ দিয়ে চুলের জট ছাড়িয়ে চুল আঁচড়ে নিন।

ধাপ 2: চুল হেয়ার টাই দিয়ে খুব উঁচু করে পনিটেলে বেঁধে নিন। যত উঁচু করে বাঁধতে পারবেন, তত ভালো!

ধাপ 3: চুল কতটা ঘন তার ওপর নির্ভর করে চুল দুটো বা তিনটে ভাগে ভাগ করে নিন। কার্ল খুব ঘন আর ছোট ছোট করতে হলে পাঁচটা বা ছ'টা ভাগও করতে পারেন।

ধাপ 4: চুলের একটা ভাগ নিয়ে কার্লিং রডে জড়িয়ে নিন, কয়েক সেকেন্ড রাখুন, তারপর খুলে দিন।

ধাপ 5: প্রতিটি ভাগ এভাবে কার্ল করুন।

 

কার্লিং আয়রন

কার্লিং আয়রন

ধাপ 6: হেয়ার টাই খুলে চুল ছেড়ে দিন, আঙুল চালিয়ে আলগা করে নিন।

ব্যস, দেখলেন তো, 45 মিনিটের লম্বা কার্লিংয়ের কাজ কেমন মাত্র পাঁচ মিনিটে হয়ে গেল! এবার যখন খুশি কার্ল করে নিন চুল আর হয়ে উঠুন গ্ল্যামারাস!