রবিবারের অলস দুপুর – বসে থাকতে মনে হল চুলে একটু তেল লাগাবেন। বা মাকে বলবেন মাথায় জমাটি একটা মালিশ করে দিতে – যাতে সারা সপ্তাহের ক্লান্তি একেবারে দূর হয়ে যায়। কিন্তু জানেন কি, এই কাজটি করতে গিয়েও ভুল হতে পারে? চুলে তেল দেওয়ার পদ্ধতিতে গলতি থাকলে তা ক্রমশ নিষ্প্রাণ ও শুকনো হয়ে যাবে -- আপনি নিশ্চয়ই তা চান না? 

চুলে নিয়মিত তেল দেওয়া জরুরি, কিন্তু সেই সঙ্গে এমন কিছু বিষয় আছে, যা এড়িয়ে চলতে হবে যে কোনও মূল্যে। তা হলে চলুন, খুঁজে বের করা যাক ভুলগুলো কী কী এবং আপনি তার মধ্যে কতগুলি ইতিমধ্যেই করে ফেলেছেন বা এখনও করছেন!

 

 

তেল দেওয়ার পরেই চুল আঁচড়াচ্ছেন

তেল দেওয়ার পরেই চুল আঁচড়াচ্ছেন

তেল মাখার পর পরই জট ছাড়ানোর জন্য চিরুনির শরণ নেওয়া স্বাভাবিক। আমরা অনেকেই এই ভুল করি এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তা বন্ধ করা উচিত। ভালো করে তেল মালিশ করার পর আপনার স্ক্যাল্প রিল্যাক্সড হয়, সেই সঙ্গে ভঙ্গুর হয় চুল। তাই তেল দেওয়ার পরেই চুল আঁচড়ালে তা ভাঙবে, ঝরে পড়বে। যদি একান্তই চুল আঁচড়াতে হয়, তা হলে নিচের দিকটা আগে আঁচড়ে ফেলুন। তার পর উপরে যাবেন।

 

সারা রাত চুলে তেল মাখা থাকছে

সারা রাত চুলে তেল মাখা থাকছে

বেশিরভাগ ভারতীয় মহিলাই এই ভুলটা করেন, সারা রাত তাঁদের স্ক্যাল্পে তেল লাগানো থাকে। এর ফলে চুল চিপচিপে আর চটচটে হয়ে যায়, সেই সঙ্গে বিছানা আর বালিশে জমা রাজ্যের ময়লাও মাথায় বসে। আপনার স্ক্যাল্পের নিজস্ব তেলের সঙ্গে তা মিশে নানা সংক্রমণ হতে পারে। এই সমস্যা এড়াতে চাইলে মাথায় তেল দিয়ে বেশিক্ষণ রাখার দরকার নেই।

 

ভেজা চুলে তেল লাগাচ্ছেন

ভেজা চুলে তেল লাগাচ্ছেন

অনেক মহিলাই ভেজা চুলে তেল লাগাতে অভ্যস্ত, কখনও এই ভুলটি করবেন না। ভেজা চুলের ফলিকল খুব নরম হয়, সামান্য টানা-হেঁচড়াতেই চুল পড়তে পারে। তাই চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য আগে তা শুকিয়ে নিন, দরকার হলে তার পর তেল মাখবেন।

 

প্রয়োজনের চেয়ে বেশি তেল মাখছেন

প্রয়োজনের চেয়ে বেশি তেল মাখছেন

আপনার চুল ও স্ক্যাল্প খুব শুকনো হলেও অতিরিক্ত তেল লাগিয়ে কোনও ফল পাবেন না। চুলের যতটা দরকার, স্রেফ ততটুকু তেলই দিন। মনে রাখবেন, বেশি তেল ধুতে বেশি শ্যাম্পু লাগে। তা চুলের স্বাভাবিক, সুরক্ষাদায়ী তেলটুকুও কেড়ে নেবে।

 

খুব টেনে শক্ত করে চুল বাঁধছেন

খুব টেনে শক্ত করে চুল বাঁধছেন

আগেই বলা হয়েছে যে চুলে তেল দেওয়ার পর স্ক্যাল্প খুব রিল্যাক্সড হয়ে যায়, ফলে চুল হয় ভঙ্গুর। তখন যদি খুব টেনে আঁচড়ে বিনুনি বা খোঁপা বাঁধেন, তা হলে গোড়া আলগা হয়ে আরও বেশি চুল পড়তে আরম্ভ করবে। তেল মালিশ করার পর আলগা খোঁপা বা পনিটেল বেঁধে নিতে পারেন।