চুলের বাড়বৃদ্ধির জন্য অপেক্ষা করা খুবই কষ্টকর আর হতাশাব্যঞ্জক অভিজ্ঞতা | আপনার জানাও নেই যে কতদিন লাগবে ঠিকঠাক চুলের বৃদ্ধি হতে  অথবা ঠিক যেমন দীর্ঘ বা ঘন চুলের স্বপ্ন মনে মনে লালন করে আসছেন, তা আদৌ সফল হবে কি না | অবশ্যই এই স্বপ্ন তখনই বাস্তবায়িত করা সম্ভব, যদি আপনার জানা থাকে সেই সব পুরোনো এবং পরীক্ষিত উপায়, যা বংশ পরম্পরায় আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে | চুলের বাড়বৃদ্ধির জন্য অ্যালো ভেরার চেয়ে উপকারী আর ফলদায়ী আর কোনও উপাদান হতেই পারে না ! আমরা বেছে নিয়েছি এই  অ্যালো ভেরা  সমৃদ্ধ ১০টি পদ্ধতি, যা চুলের বৃদ্ধির ক্ষেত্রে এতই উপযোগী, যে আমরা হলফ করে বলতে পারি অল্প চুলের জন্য কখনোই আপনাকে আর মনোকষ্টে থাকতে হবে না |

বিশেষ দ্রষ্টব্য : মনে রাখবেন, বেশিরভাগ নিরাময় বা প্রতিরোধের ক্ষেত্রে টাটকা  অ্যালো ভেরা  ব্যবহার  করতে হবে | আপনার নিজের ব্যবহারের জন্য  অ্যালো ভেরা  পেতে গেলে অ্যালো ভেরা  গাছের একটি  পাতা  সাবধানে মাঝখান দিয়ে কেটে চামচ দিয়ে ভেতরের জেলটি বার করে নিন | তারপর জেলটি ফুড প্রসেসরে ঘুরিয়ে সুষম মিশ্রণ বানিয়ে নিন |
 
অ্যালো ভেরা  আর ক্যাস্টর অয়েল
 

অ্যালো ভেরা আর ক্যাস্টর অয়েল

ক্যাস্টর অয়েল চুলের বাড়বৃদ্ধির পক্ষে অত্যন্ত ভালো উপাদান | এটি চুলের ঘনত্বও বাড়ায় | এতে অ্যালো ভেরা মিশিয়ে একসঙ্গে ব্যবহার করলে তা নতুন করে চুলের বৃদ্ধিতে আর চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে | একটি পাত্রে দুটি উপাদান ভালো করে মেশান, যাতে একটি সুষম সংমিশ্রণ তৈরি হয় | এটি মাথার ত্বকে আর চুলে লাগান | খেয়াল রাখবেন, চুলের গোড়ায় আর আগায় যেন ভালোভাবে লাগে | পুরো মিশ্রণ দিয়ে চুল যখন পুরোপুরি ঢেকে যাবে, তখন মাথায় শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন | এবার নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে পড়ুন | সকালে উঠে মিশ্রণটি ভালো শ্যাম্পু ব্যবহার করে ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা  আর নারকেল তেল
 

অ্যালো ভেরা আর নারকেল তেল

নারকেল তেল আর অ্যালো ভেরার মিশ্রণ চমৎকার কন্ডিশনারের কাজ করে যা মাথার ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে | এই আবরণটি আপনার চুলকে একেবারে ঠিকঠাক রাখে যাতে চুলের আগা ফেটে নষ্ট না হয় আর আপনাকে বারবার চুল ছাঁটতে না হয় | একটি পাত্রে ৫ টেবল চামচ অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে ৩ টেবল চামচ নারকেল তেল আর ২ টেবল চামচ মধু মেশান | এবার মাথার ত্বক আর চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে প্রথমে লাগিয়ে নিয়ে মিশ্রণ লাগাতে লাগাতে নেমে আসুন চুলের আগা পর্যন্ত | এই চুলের আগার দিকে খুব ভালো করে মিশ্রণটি লাগান, মনে রাখবেন এই আগাই কিন্তু সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় | যখন সমস্ত চুল ভালোভাবে মিশ্রণ দিয়ে ঢাকা পড়ে যাবে, মাথায় শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন | আধঘণ্টা পরে চুল ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা  আর ডিম
 

অ্যালো ভেরা আর ডিম

আমরা জানি, ডিমের কুসুমে প্রচুর স্নেহজাতীয় পদার্থ থাকে আর সেই কারণে এটি কন্ডিশনিং-এর সেরা উপাদান | এতে কিছুটা অলিভ অয়েল আর অ্যালো ভেরা মিশিয়ে নিন | আপনার চুলের পক্ষে সবচেয়ে পুষ্টিকর খাবারই শুধু নয়, দেখবেন বাড়বৃদ্ধির ক্ষেত্রে এটি আপনার চুলকে এক অন্য মাত্রা দেবে | একটি পাত্রে অ্যালো ভেরা, অলিভ অয়েল আর ডিমের কুসুম ফেটিয়ে মিশিয়ে নিন ভালো করে | তারপর মাথার ত্বকে লাগান | সবচেয়ে ভালো ফল পাওয়ার জন্য শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন | ২০-২৫ মিনিট অপেক্ষা করে ঠাণ্ডা জলে মাথা ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা আর পেঁয়াজ
 

অ্যালো ভেরা আর পেঁয়াজ

আমরা এই যে এতক্ষণ অ্যালো ভেরা নিয়ে এত কথা বলছি, যখন এই অ্যালো ভেরার সঙ্গে পেঁয়াজের রস মিশিয়ে ব্যবহার করা হয়, তখন অজস্র উপকার পাওয়া যায় | এই মিশ্রণটি চুল পড়া প্রতিরোধ করে আর নতুন করে চুল গজাতেও সহায়তা করে | পেঁয়াজের রসে মাথার ত্বক চনমনে হয়ে ওঠে আর তখন চুলের বাড়বাড়ন্তও হয় খুব | ৩-৪ টি বড়ো পেঁয়াজ নিয়ে ব্লেন্ডারে থকথকে করে বেটে নিন | এবার জালিকাপড় দিয়ে রস ছেঁকে নিন | তাতে অ্যালো ভেরা জেল খুব ভালো করে মেশান | এবার মাথার ত্বকে খুব ভালো করে ঘষে ঘষে এই মিশ্রণটি লাগান | চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত সমানভাবে মিশ্রণটি লাগাতে হবে | ঘণ্টাখানেক রেখে ভালো শ্যাম্পু আর কন্ডিশনার ব্যবহার করে চুল ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা আর নারকেলের দুধ
 

অ্যালো ভেরা আর নারকেলের দুধ

নারকেলের দুধে আছে ভালো কন্ডিশনারের সব ক’টি গুণ , যা আপনার চুলের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে | এটি মাথার ত্বক আর চুলের পুষ্টি জোগাতেও সহায়তা করে | এটি মাথার ত্বকের একদম ভেতর পর্যন্ত যায়, ফলে ভেতর থেকে চুল সম্পূর্ণ পুষ্টি পায় | একটি পাত্রে ৪ টেবল চামচ অ্যালো ভেরা জেল, ৪ টেবল চামচ নারকেলের দুধ আর ১ টেবল চামচ নারকেল তেলের মসৃণ মিশ্রণ তৈরি করুন | এবার মাথায় খুব ভালো করে এটি ঘষে ঘষে লাগান আর তারপর গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত সমস্ত চুলেও খুব ভালোভাবে মাখুন | আধঘণ্টা পরে চুল ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা আর গ্রীন টী
 

অ্যালো ভেরা আর গ্রীন টী

এই মিশ্রণটি আপনার চুলের স্বাস্থ্যবৃদ্ধি করে এবং চুলের ক্ষতি প্রতিরোধ করে | গ্রীন টীতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস আছে, যেগুলি মাথার ত্বকের ক্ষতি হওয়া কমায় এবং চুলের বাড়বৃদ্ধিতে সাহায্য করে | যখন চুলের সুরক্ষার জন্য আমরা এই অ্যালো ভেরা নিয়ে আলোচনা করছি, মনে রাখতে হবে এই বস্তুটির ব্যবহার অগুনতি | আধ পেয়ালা সদ্য তৈরি করা গ্রীন টী আর আধ পেয়ালা টাটকা অ্যালো ভেরা জেল ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালোভাবে মেশান | দেখে নিন যাতে কোনও ছোট মণ্ড না রয়ে যায়, তাহলে কিন্তু সেটি আপনার চুলে আটকে থাকবে | এবার মাথায় এই মিশ্রণটি খুব ভালোভাবে মালিশ করুন যাতে সমস্ত চুলে পুরোপুরি লেগে যায় | এবার মিনিট দশেক রেখে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন |

অ্যালো ভেরা  আর মেথি
 

অ্যালো ভেরা আর মেথি

মেথিবীজ আপনার চুলে ম্যাজিক দেখিয়ে দিতে পারে | এতে আছে হরমোন- অ্যান্টিসিডেন্টস, যেগুলি চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে আর চুলের গ্রন্থিকোষ নতুন করে তৈরি করে, যাতে চুল পড়ার সমস্যা কমে | সারা রাত জলে এক পেয়ালা মেথিবীজ ভিজিয়ে রাখুন | এবার সকালে সেটি মসৃণ করে পিষে নিয়ে তাতে ২ টেবল চামচ অ্যালো ভেরা জেল খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে এই মিশ্রণটি চুলে আর মাথার ত্বকে লাগিয়ে ফেলুন | শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন | একঘণ্টা অপেক্ষা করে প্রথমে জল দিয়ে আর তারপরে ভালো শ্যাম্পু ব্যবহার করে চুল ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা  আর আমলকী
 

অ্যালো ভেরা আর আমলকী

আমলকীতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আর অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস যা চুলের প্রকৃতি আর গঠন সুন্দর করে আর চুল পড়া প্রতিরোধ করে | আমলকীর অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট গুণগুলি সামগ্রিকভাবে মাথা এবং চুলের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে | একটি পাত্রে এক টেবল চামচ থেঁতো করা আমলকীর শাঁস এবং এক টেবল চামচ অ্যালো ভেরা জেল নিয়ে চামচ দিয়ে খুব ভালভাবে মেশান | তারপর মিশ্রণটি মাথার ত্বকে লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন | ৩০-৪০ মিনিট অপেক্ষা করে জল দিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলুন | প্রতি সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ বার এই পদ্ধতির সাহায্য নিলে নিজেই উপকারিতা বুঝতে পারবেন |

অ্যালো ভেরা আর অলিভ অয়েল
 

অ্যালো ভেরা আর অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল ভিটামিন এ এবং ই-এর অত্যন্ত সমৃদ্ধ উৎস, যেগুলি আপনার চুলের গোছকে শক্তপোক্ত করে এবং চুলের গ্রন্থিকোষগুলিকে তেজী করে তোলে | মাথায় অলিভ অয়েল দিয়ে মালিশ করলে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে এবং চুলের স্বাস্থ্য ভালো হয় | একটি পাত্রে ২ টেবল চামচ অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে ৩ টেবল চামচ অলিভ অয়েল ভালোভাবে মেশান | এবার ১০ মিনিট ধরে এটি চুলের গোড়ায় খুব ভালোভাবে মালিশ করুন | মালিশের পরে আরও আধঘণ্টা অপেক্ষা করে ভালো শ্যাম্পু ব্যবহার করে মাথা ধুয়ে ফেলুন |

অ্যালো ভেরা আর কায়ান পেপার
 

অ্যালো ভেরা আর কায়ান পেপার

যদি সত্যি সত্যি চুলের বাড়বৃদ্ধি নিয়ে মাথা ঘামান, তাহলে জেনে রাখুন কায়ান পেপার ( এক ধরনের মরিচ) আর অ্যালো ভেরা একসঙ্গে ব্যবহার করলে তা স্বাভাবিক উপায় চুলের জন্ম দেয় এবং চুল বেড়ে ওঠার রসদ জোগান দেয় | এই দুটি উপাদান চুল পুরু করে, যাতে চুল ঘন হয় | একটি পাত্রে আধ পেয়ালা টাটকা অ্যালো ভেরা জেল এবং ১ চা- চামচ কায়ান পেপার মিশিয়ে সুষম মিশ্রণ বানান | এবার তা থেকে এক টেবল চামচ মিশ্রণ নিয়ে সেটি ভালো করে মাথায় মালিশ করুন | বাকি মিশ্রণ পরিষ্কার শিশিতে রেখে দিন পরে ব্যবহার করার জন্য | মিশ্রণটি মাথার ত্বকে মেখে ১০ মিনিট অপেক্ষা করে ভালো শ্যাম্পু আর কন্ডিশনার ব্যবহার করে চুল ধুয়ে ফেলুন |