চুলে রং করলে চুলের ক্ষতি হয় আর রং করা চুলে তেল দিলে রং ফিকে হয়ে যেতে পারে। এই সব  কথা কতটা সত্যি বলে আপনি মনে করেন? যদি আমরা আপনাকে বলি যে এর কোনওটিই সত্যি নয়?

অবাঞ্ছিত পাকা চুল ঢাকাই হোক, বা চুলে কোনও নতুন রং করাই হোক, এই বিষয়গুলো নিয়ে বেশ কিছু মিথ বা আজগুবি গল্প চালু আছে, যা আদৌ সত্যি নয় এবং সেগুলি আপনার জানা খুবই জরুরি। যদি সত্যিই আপনি এই ধরনের নানারকম  উড়ো  কথায় কান দিয়ে থাকেন, তা হলে এই লেখাটি অবশ্যই পড়ুন।

 

মিথ1: রং করলে চুলের ঘনত্ব কমে যায়

মিথ1: রং করলে চুলের ঘনত্ব কমে যায়

বাস্তব : যদিও অনেকে মনে করেন রং করলে চুলের ঘনত্ব কমে যায়, আসলে কিন্তু রং করার পরে প্রতিটি চুল আগের তুলনায় মোটা আর পরিপূর্ণ দেখায়। রং করার জন্য যে লাইটেনিং এজেন্ট ব্যবহার করা হয়, তা আসলে কিউটিকলকে ফুলিয়ে দেয়, যাতে সহজে রং ধরানো যায়।

 

মিথ 2: রং করা চুলে তেল দিলে রং ফিকে হয়ে যায়

মিথ 2: রং করা চুলে তেল দিলে রং ফিকে হয়ে যায়

বাস্তব : অভ্যাস অনুযায়ী চুলে তেল দিতে কুণ্ঠিত হবেন না। কারণ তেল কোনও ক্ষতি করে না। বরং তেল আপনার চুলে আনে উজ্জ্বলতা আর তেল ব্যবহার করলে চুলের নতুন রংই বরং আরও প্রকট হয়। আপনার নতুন রং করা চুল তেলের দৌলতে দেখায় আরও স্বাস্থ্যবান, আরও উজ্জ্বল।

 

মিথ 3: রং করার আগে চুল ধুয়ে নিন

মিথ 3: রং করার আগে চুল ধুয়ে নিন

বাস্তব : যে চুল 24 থেকে 48 ঘণ্টা আগে ধুয়েছেন, তাতে রং লাগান। চুলে যে রং করা হয়, তাতে রাসায়নিক উপাদান থাকে। আমাদের স্ক্যাল্পে যে স্বাভাবিক তেল তৈরি হয়, সেই তেল ওই রাসায়নিক উপাদানগুলির অপকারিতা থেকে চুল রক্ষা করে। সদ্য চুল ধোয়ার পরেপরেই স্বাভাবিকভাবেই ওই তেল কম থাকে বলে রাসায়নিক পদার্থ থেকে চুলের ক্ষতি হয় বেশি । তাই চুল ধোয়ার সঙ্গে সঙ্গে চুলে রং না করে এক দু’দিন অপেক্ষা করে রং করা চুলের স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো।

 

মিথ 4: রং করা চুলে সাধারণ শ্যাম্পুই ব্যবহার করা যায়

মিথ 4: রং করা চুলে সাধারণ শ্যাম্পুই ব্যবহার করা যায়

বাস্তব : রং যাতে তাড়াতাড়ি ফিকে না হয়ে যায় বা চুলে যাতে চকচকে ভাব আর আর্দ্রতা ঠিকঠাক বজায় থাকে, তার জন্য এমন শ্যাম্পুতে বিনিয়োগ করুন, যেগুলি বিশেষভাবে রং করা চুলের জন্যই ফর্মুলা মেনে তৈরি। এতে ভবিষ্যতে আপনারই সাশ্রয় হবে।

 

মিথ 5: যদি একবার চুলে রং করা শুরু করেন, তা হলে তা নিয়মিত করে যেতেই হবে

মিথ 5: যদি একবার চুলে রং করা শুরু করেন, তা হলে তা নিয়মিত করে যেতেই হবে

বাস্তব: এটি একেবারেই সত্য নয়। চুলে রং করবেন কিনা, করলেও তা বারবার করবেন কিনা, তা সম্পূর্ণভাবে আপনার উপরে নির্ভর করে। একবার রং করেছেন মানে এই নয় যে আপনি ইচ্ছে করলে আপনার চুলের আসল রং আর কখনও ফিরে পাবেন না । যদি খুব ভালো মানের চুলের রং ব্যবহার করেন, তা হলে নির্ভয়ে চুলের রং নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে যান ।