যে কোনও মেয়ের চুলের বেস্ট ফ্রেন্ড হল পনিটেল! বেঁধে ফেলা সহজ, মেনটেন করা সহজ, আর সেই সঙ্গে পনিটেল হল সবচেয়ে ভার্সাটাইল হেয়ারস্টাইলগুলোর মধ্যে অন্যতম, কারণ নানাভাবে তা বাঁধা যায়। এত কিছু সত্ত্বেও কিন্তু পনিটেলের একটা অসুবিধে আছে। একটানা পনিটেল বাঁধতে বাঁধতে বাঁধার জায়গা বরাবর চুলে একটা খাঁজমতো তৈরি হয়ে যায়, যা ঠিক করা বেশ ঝামেলার কাজ।

টাইট করে, উঁচু করে যাঁরা পনিটেল বাঁধেন, তাঁদের চুলে এই খাঁজটা এসে যায়, চুল কখনও খুলে রাখলে তখন এই খাঁজের কারণে ভালো দেখতে লাগে না। জেনে নিন কীভাবে এ সব খাঁজ সরিয়ে ফের মসৃণ করে তুলবেন চুল।

 

ভেজা চুল বাঁধবেন না

ভেজা চুল বাঁধবেন না

ভেজা অবস্থায় চুল খুব দুর্বল অবস্থায় থাকে। এ জন্যই ভেজা চুল ঘষে মুছতে বা আঁচড়াতে বারণ করা হয়। একইভাবে চুল পুরোপুরি না শুকোনো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন, তারপর পনিটেল বাঁধতে পারেন।

 

স্পাইরাল হেয়ার টাই ব্যবহার করুন

স্পাইরাল হেয়ার টাই ব্যবহার করুন

স্পাইরাল টাই না থাকলে একটা কিনে নিন এক্ষুনি! স্পাইরাল টাই চুলের চারপাশে একটা অসমান চাপ তৈরি করে, ফলে চুলে খাঁজ তৈরি হয় না। তা ছাড়া স্পাইরাল টাই সাধারণ ব্যান্ডের মতো আলগা হয়ে যায় না, শক্ত বাঁধনে চুল আটকে রাখে। স্পাইরাল টাই টেঁকেও অনেকদিন। যদি স্পাইরালগুলো আলগা হয়ে গেছে বলে মনে হয়, তা হলে গরম জলে একমিনিট ডুবিয়ে রাখুন, স্পাইরাল টাই ফের নিজের পুরনো আকার আর আয়তন ফিরে পাবে।

 

হেয়ার স্ট্রেটনার

হেয়ার স্ট্রেটনার

আপনার চুল যদি খুব ঘন হয় আর ওপরে বলা কৌশলগুলোর কোনওটাই কাজে না আসে, তা হলে আর একটাই উপায় রয়েছে। স্ট্রেটনার দিয়ে চুল স্ট্রেট করে নিন। অনেক সময় চুলের খাঁজ ঠিক করার সময় হাতে থাকে না। সে ক্ষেত্রে স্ট্রেটনার দিয়ে চুল স্ট্রেট করে নেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ।