চুলের যতরকম সমস্যা হয়, তার একদম প্রথমদিকেই রয়েছে চুলের শুষ্কভাব বা ড্রাই হেয়ার। যতই চেষ্টা করুন না কেন, মাঝেমাঝে চুলের শুষ্কভাব থেকে রেহাই পাওয়া অসম্ভব মনে হয়। শুকনো চুল শুধু দেখতেই খারাপ লাগে না, তা থেকে আরও নানা সমস্যা দেখা দেয় - চুলের আগা ফেটে যাওয়া থেকে শুরু করে চুলের স্থায়ী ক্ষতিও হয়ে যেতে পারে। তাই চুলের শুষ্কভাব কাটিয়ে উঠতেও হবে। প্রশ্ন হল চুলের শুষ্কতা থেকে মুক্তি পাওয়ার, চুলে শুষ্কভাব আটকানোর উপায় কী?

এক কথায় এর উত্তর হল, সেই সব উপাদান এড়িয়ে চলা যা চুলের আর্দ্রতা কেড়ে নেয় এবং শুষ্ক চুলের হাল ফেরাতে হাইড্রেটিং উপাদান ব্যবহার করা। নিচে আমরা পাঁচটি উপাদানের হদিশ দিলাম। দ্রুত শুষ্ক চুলে আর্দ্রতা ফেরাতে চাইলে ব্যবহার করুন এ সব উপাদান আর চিরকালের মতো বিদায় দিন চুলের রুক্ষতাকে।

 

01. মুরুমুরু বাটার

01. মুরুমুরু বাটার

শিয়া বাটারের চেয়েও বেশি আর্দ্রতা রয়েছে মুরুমুরু বাটারে, তার সঙ্গে এটি চুলের পক্ষেও খুবই উপকারী। বেশি মাত্রায় লরিক অ্যাসিড থাকার কারণে এই উপাদানটি চুলের গভীরে প্রবেশ করে শুষ্কতা আর রুক্ষতা প্রতিরোধ করে। চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখার ক্ষমতাও বাড়িয়ে তোলে এই উপাদানটি, ফলে চুল নরম আর আর্দ্র থাকে।

বিবি-র পছন্দ: লাভ বিউটি অ্যান্ড প্ল্যানেট ন্যাচারাল মুরুমুরু বাটার অ্যান্ড রোজ শাইন শ্যাম্পু অ্যান্ড কন্ডিশনার/ Love Beauty & Planet Natural Murumuru Butter & Rose Shine Shampoo & Conditioner Combo

 

02. আর্গান অয়েল

02. আর্গান অয়েল

ভিটামিন, মিনারেল আর অ্যান্টিঅক্সিডান্টে সমৃদ্ধ আর্গান অয়েল চুলের ইলাস্টিসিটি বা স্থিতিস্থাপকতা বাড়িয়ে তোলে, নিষ্প্রাণ নির্জীব চুলে চমক ফেরায়। কীভাবে? কারণ এতে রয়েছে ভিটামিন ই! আর্গান অয়েলের মূল উপাদান ভিটামিন ই চুলের ফলিকলগুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত হতে দেয় না, ফ্রি র‍্যাডিকালসের হামলা রুখে দেয় আর আর্গান অয়েলের ফ্যাটি অ্যাসিড চুলের আর্দ্রতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে।

বিবি-র পছন্দ: ট্রেসমে কেরাটিন স্মুদ উইথ আর্গান অয়েল/ Tresemme Keratin Smooth With Argan Oil Shampoo

 

03. ডাবের জল

03. ডাবের জল

ডাবের জল যে শুধু তৃষ্ণা মেটায় তাই নয়; চুলে আর্দ্রতার ঘাটতি হলে তাও পূরণ করে ডাবের জল। এতে রয়েছে লরিক অ্যাসিড নামে একটি ফ্যাটি অ্যাসিড যা শুষ্ক চুলে ময়শ্চার এনে দেয়। ডাবের জল আপনার চুল থেকে ডিহাইড্রেশন কমিয়ে তা আর্দ্র করে তুলবে। পাশাপাশি চুলের রুক্ষতা, মাথার চুলকানি, এমনকী ডগা ফাটা চুলের হাত থেকেও নিষ্কৃতি দিতে পারে ডাবের জল, চুল সহজেই সামাল দেওয়া যায়।

বিবি-র পছন্দ: লাভ বিউটি অ্যান্ড প্ল্যানেট ন্যাচারাল কোকোনাট ওয়াটার অ্যান্ড মিমোসা ভল্যুম শ্যাম্পু অ্যান্ড কন্ডিশনার কম্বো/ Love Beauty & Planet Natural Coconut Water & Mimosa Volume Shampoo & Conditioner Combo

 

04. অ্যালো ভেরা

04. অ্যালো ভেরা

পুষ্টিগুণের কারণে অ্যালো ভেরা চিরকালই প্রথম সারিতে, শুষ্ক চুলের হাল ফেরাতেও জুড়ি নেই তার। ভিটামিন সি, ই আর বি-12-এর পাশাপাশি এতে রয়েছে ফলিক অ্যাসিড, যা চুলে পুষ্টি জোগায়, চুল আর্দ্র আর মজবুত রাখে। চুল হয়ে ওঠে সুন্দর আর স্বাস্থ্যঝলমলে।

বিবি-র পছন্দ: সানসিল্ক কোকোনাট ওয়াটার অ্যান্ড অ্যালো ভেরা ভল্যুম হেয়ার শ্যাম্পু/ Sunsilk Coconut Water & Aloe Vera Volume Hair Shampoo

 

05. মধু

05. মধু

আর্দ্রতায় ভরপুর মধু চুল শুধু আর্দ্রই রাখে না, সেই আর্দ্রতা চুলের গভীরে ধরে রাখতেও সাহায্য করে। শুষ্ক চুল মোলায়েম কোমল করে তুলতে জুড়ি নেই মধুর। নিয়মিত মধুর ব্যবহারে চুল চকচকে হয়ে ওঠে, শুষ্ক বিবর্ণ চুলে আসে চমক, ফলে চুলের হারানো জৌলুস ফিরে আসে দ্রুত! মধুর পুষ্টি চুলের গভীরে ঢুকে চুল ঝলমলে সুন্দর করে তোলে।

বিবি-র পছন্দ: ডাভ হেলদি রিচুয়াল ফর স্ট্রেংদেনিং হেয়ার মাস্ক/Dove Healthy Ritual For Strengthening Hair Mask