শ্যাম্পু করার পর চুলটা দারুণ ফুরফুরে সুন্দর হয়ে ওঠে সন্দেহ নেই! কিন্তু এমন অনেক মেয়ে আছেন যাঁরা শ্যাম্পু করতে খুব একটা ভালোবাসেন না! তার কারণ একটাই! শ্যাম্পু করার পর তাঁদের চুল এমন সিংহের কেশরের মতো ফুলে ওঠে যে কিছুতেই ম্যানেজ করা যায় না! কেন এমন হয় সে কথাটা ভেবে দেখেছেন কি? আসলে শ্যাম্পু করার পরে বা চুল ভিজিয়ে স্নানের পরে আপনি কী কী করছেন, তার ওপর চুলের হাল অনেকটাই নির্ভর করে। আপনি কীভাবে চুল শুকোচ্ছেন, কীভাবে চুলের জট ছাড়াচ্ছেন, এ সব কিছুই ঠিক করে দেয় সারাদিন আপনার চুল কেমন আচরণ করবে! তবে একটু খেয়াল করলে এমন রুক্ষ চুল বশে রাখা অবশ্যই সম্ভব!

চুল ভিজিয়ে স্নানের পর কীভাবে বশে রাখবেন চুলের রুক্ষভাব? রইল কিছু জরুরি টিপস।

 

ধাপ 01: ভেজা চুল আঁচড়াবেন না

ধাপ 01: ভেজা চুল আঁচড়াবেন না

আঙুল দিয়ে চুলের জট ছাড়ান; স্নান সেরে বেরিয়ে এসেই চুলে চিরুনি বা ব্রাশ দেবেন না। তাতে ঘষা লেগে চুলের ক্ষতি হয়ে যাবে, চুল রুক্ষও হয়ে যাবে। ভেজা চুল খুব দুর্বল অবস্থায় থাকে, ফলে একটু টান পড়লেই ভেঙে যাওয়ার ভয় থাকে। তাই ভেজা চুলে চিরুনি বা ব্রাশ লাগালে চুল ওঠার পরিমাণ অনেক বেড়ে যাবে। স্ট্রেট, ওয়েভি, কোঁকড়ানো, সব ধরনের চুলের ক্ষেত্রেই এই নিয়ম প্রযোজ্য!

 

ধাপ 02: শুধু চুলের গোড়াটা শুকিয়ে নিন

ধাপ 02: শুধু চুলের গোড়াটা শুকিয়ে নিন

ব্লো ড্রায়ার ব্যবহার যদি করতেই হয়, প্রথমেই একটা হিট প্রোটেকট্যান্ট লাগিয়ে নিন।  Tresemme Keratin Smooth Heat Protection Shine Spray লাগাতে পারেন। তারপর ব্লো ড্রায়ার দিয়ে শুধু চুলের গোড়াটা শুকিয়ে নিন। চুল শুকোনোর সময় ড্রায়ারে ডিফিউজার অ্যাটাচমেন্টটা লাগিয়ে নিন। যাঁদের কোঁকড়া চুল, তাঁরা এই নিয়মটা অবশ্যই মেনে চলবেন। এতে আপনার কোঁকড়া চুলের শেপটা ঠিক থাকবে।

 

ধাপ 03: চুলের জল মুছতে সুতির টি-শার্ট

ধাপ 03: চুলের জল মুছতে সুতির টি-শার্ট

ভেজা চুল মুছতে তোয়ালে ব্যবহার করবেন না। খুব নরম তোয়ালে হলেও তাতে চুল রুক্ষ হয়ে যাবে, চুলের ক্ষতি হবে। পরিবর্তে চুল মুছতে সুতির টি-শার্ট ব্যবহার করুন। এটি খুব কোমলভাবে চুল মোছে, চুলের কিউটিকলেও আঁচড় পড়ে না। ফলে চুলের রুক্ষতাও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

 

ধাপ 04: সিরাম লাগান

ধাপ 04: সিরাম লাগান

একদম শেষ ধাপে স্মুদিং সিরাম লাগিয়ে নিন চুলে।  TIGI Bed Head Control Freak Frizz Control And Straightening Serum লাগান চুলের দৈর্ঘ্য বরাবর, চুলের ডগার দিকটাতেও লাগিয়ে নিন ভালো করে। এই সিরাম বাতাসের আর্দ্রতাকে প্রতিহত করে এবং চুল মসৃণ আর রেশমি রাখে। এই সিরাম সব ধরনের চুলেই লাগাতে পারেন। স্টাইলিংয়ের আগে ভেজা বা শুকনো চুলে মেখে নিন।