রেশমের মতো চকচকে মসৃণ একঢাল লম্বা চুল যদি থাকে, আর আশপাশের লোকের প্রশংসার মুগ্ধ দৃষ্টি সেই চুলেই এসে বারবার আটকে যায়, তা হলে তো গর্বের সীমা না থাকারই কথা! এর পিছনে যে মেহনত আপনি করেছেন, যে সময় দিয়েছেন, তার ফলেই আজ এত সুন্দর চুলের মালকিন হতে পেরেছেন আপনি! আর সেই চুল দেখাবেন না, তাও কি হয়?

ফলে অনুষ্ঠান হোক বা বিয়েবাড়ি, খোলা চুলই আপনার স্টাইল স্টেটমেন্ট হয়ে ওঠে স্বাভাবিকভাবে! কিন্তু দিনের পর দিন খোলা চুলের স্টাইল করতে করতে সেটা একঘেয়ে হয়ে উঠতে বাধ্য! বিনুনি বা ঘাড় ছোঁয়া পনিটেলও খুব একটা উপযুক্ত স্টাইলিং নয়। সুন্দর লম্বা চুলের চাই গ্ল্যামারাস, নজরকাড়া স্টাইল। সেই সন্ধানই আপনাকে দেব আমরা!

 

এলোমেলো খোঁপা

এলোমেলো খোঁপা

লম্বা চুল খোঁপায় জড়িয়ে বেঁধে নেওয়াই সবচেয়ে সহজ। কিন্তু তার জন্য কি সাদামাটা, ঘরোয়া খোঁপা বাঁধবেন? তার চেয়ে বরং ট্রাই করুন করিনার মতো বান। একটু আলগা, একটু এলোমেলো চুলের এই খোঁপা বাঁধাও সহজ, দেখতেও দারুণ গ্ল্যামারাস। চুল আঁচড়ে মাথার পিছনে পনিটেল বেঁধে নিন, তারপর খোঁপার মতো করে জড়িয়ে কাঁটা দিয়ে আটকে দিন। খোঁপা থেকে কিছু ঝুরো চুল আলগা করে দিন খোঁপার চারপাশে আর মুখের সামনের দিকে, এলোমেলো লুকটা পেয়ে যাবেন।

 

উঁচু পনিটেল

উঁচু পনিটেল

এমন হেয়ারস্টাইল খুঁজছেন যা একই সঙ্গে স্টাইলিশ, ফ্যাশনদুরস্ত আর অভিজাত? আবার পাশাপাশি নিজের লম্বা চুলের বাহারটাও দেখাতে চান? আরিয়ানা গ্রান্ডের মতো নিজের চুল বেঁধে নিন হাই পনিটেলে। গোড়ার দিকে একটা রাবার ব্যান্ড আটকে নিন, তারপর একগোছা চুল জড়িয়ে দিন ব্যান্ডের চারপাশে। চুল বাঁধা হয়ে গেলে ভালো করে হেয়ারস্প্রে লাগিয়ে নিতে হবে। এই স্টাইলটিতে চুল আলগা হয়ে নেমে যাওয়া একেবারেই চলবে না, তাই হেয়ারস্প্রে দিয়ে সেট করে রাখা দরকার।

 

টপ নট

টপ নট

ব্যাড হেয়ার ডে সবার জীবনেই কখনও না কখনও আসে, আর সেই সময়টায় কোনও হেয়ারস্টাইলই যেন আর কাজে আসে না। এরকম দিনে আপনাকে বাঁচাবে টপ নট। বাজার যাওয়া, ঘরের কাজ করা, বিকেলের কফি ব্রেক, অফিসের অ্যাসাইনমেন্ট করা, এক কথায় দিনের প্রতিটি মুহূর্তের জন্য টপ নট মানানসই। আর যদি কিছু সুন্দর অ্যাকসেসরি দিয়ে সাজিয়ে তুলতে পারেন আপনার টপ নট, তা হলে তো কথাই নেই! পরিপাটি করে বেঁধে নিন টপ নট, তারপর জড়িয়ে নিন রঙিন স্কার্ফ। বাহারি কাঁটাও গেঁথে দিতে পারেন! মুহূর্তে গ্ল্যামারাস হয়ে উঠবেন।

 

ফ্রেঞ্চ টুইস্ট

ফ্রেঞ্চ টুইস্ট

খোঁপা তেমন পছন্দ নয়? লম্বা চুলে এমন কোনও স্টাইল করতে চান যা দারুণ অভিজাত আর একই সঙ্গে ক্রিয়েটিভ? দেখে নিন এই হেয়ারস্টাইলটি, যে কোনও পার্টি বা ডেটে যাওয়ার জন্য দারুণ উপযোগী এটি। দারুণ স্টাইলিশ আর রোমান্টিকও বটে! চুল ভালোভাবে আঁচড়ে নিন, তারপর মাথার পেছনে ভাঁজ করে গুঁজে নিন। এরপর কাঁটা দিয়ে আটকে নিলেই হল!

 

মাইক্রো ব্রেইড বান

মাইক্রো ব্রেইড বান

বিয়ের অনুষ্ঠানেও চুল ছেড়ে রাখেন? এবার একটু অন্যরকম কিছু করুন। এই চুলের স্টাইলটি বিয়ের আসরের জন্য একদম ঠিকঠাক, দেখতে যেমন সুন্দর, তেমনি বাঁধাও সহজ। মাথার মাঝখানে সিঁথি করুন, তারপর সামনের দিকে দু'পাশে ছোট ছোট চুলের গুছি দিয়ে সরু সরু বিনুনি করে নিন। এবার বিনুনি সমেত পুরো চুলটা টেনে এনে নিচু করে পনিটেল বাঁধুন, তারপর নিচু খোঁপায় জড়িয়ে নিন। আপনার হেয়ারস্টাইলের প্রেমে পড়ে যাবেন সবাই, গ্যারান্টি!