মেকআপের বেস কেমন, তার ওপরেই নির্ভর করে বাকি লুক। মুখে ভুল ব্রাশ ব্যবহার করলে, বাড়তি প্রডাক্ট মাখলে অথবা মেকআপের আগে ত্বক প্রস্তুত করে না নিলে পুরো লুকটাই নষ্ট হয়ে যেতে পারে, যা শুধু ম্যাট লিপস্টিক, কনট্যুরের প্রলেপ আর রঙিন আইলাইনার পরে শোধরানো সম্ভব নয়। তবে চিন্তারও কিছু নেই, কারণ আমরা আছি। রইল ঝটপট নিখুঁত বেস তৈরির তিন ধাপে সহজ গাইডলাইন।

 

01. ধাপ #1: ময়শ্চারাইজার মাখুন

01. ধাপ #1: ময়শ্চারাইজার মাখুন

ত্বক ব্রাশ করে প্রাইমার লাগানোর আগে ক্লেনজার দিয়ে মুখ ধুয়ে সমস্ত তেলময়লা আর অশুদ্ধ পদার্থ সাফ করে নিন। পন্ড'স সুপারলাইট জেল অয়েল ফ্রি ময়শ্চারাইজার উইথ হ্যালুরনিক অ্যাসিড+ভিটামিন ই/ Pond’s Super Light Gel Oil Free Moisturiser With Hyaluronic Acid + Vitamin E মেখে নিন যাতে ত্বক আর্দ্রতা পেয়ে সতেজ হয়ে ওঠে। হ্যালুরনিক অ্যাসিড ও ভিটামিন ই সমৃদ্ধ এই তেলাভাবহীন জেল-বেসড ফর্মুলা ত্বক 24 ঘণ্টা পর্যন্ত আর্দ্র রাখে, ত্বক পায় জলের সতেজতা।

 

02. ধাপ #02: প্রাইমার আর কনসিলার

02. ধাপ #02: প্রাইমার আর কনসিলার

এমন প্রডাক্ট চাইছেন যা একই সঙ্গে ত্বক প্রাইম করবে আবার কনসিলও করবে? বেছে নিন ল্যাকমে নাইন টু ফাইভ প্রাইমার অ্যান্ড ম্যাট লিকুইড কনসিলার/ Lakmé 9to5 Primer and Matte Liquid Concealer r যা আপনার ত্বক প্রাইম করে মসৃণ দীর্ঘস্থায়ী বেস তৈরি করে দেয়, আবার একইসঙ্গে ডার্ক সার্কল, দাগছোপও ঢেকে দেয়। বিশেষ টিপ চাই? চোখের নিচে ত্রিভুজের আকারে কনসিলার লাগান, তারপর অনামিকা দিয়ে ব্লেন্ড করে দিন, তাতে মুখ লিফটেড দেখাবে।

 

03. ধাপ #03: ফাউন্ডেশন লাগান

03. ধাপ #03: ফাউন্ডেশন লাগান

লিকুইড ফাউন্ডেশনের খুব বড় ভক্ত আমরা, কারণ ত্বকে খুব সহজেই মিশে গিয়ে মুখে উজ্জ্বলতা ছড়ায় এই ফাউন্ডেশন। ল্যাকমে পারফেক্টিং লিকুইড ফাউন্ডেশন/ Lakmé Perfecting Liquid Foundation এ রয়েছে সিলিকন আর ভিটামিন ই যা আপনার ত্বক সজীব রাখে, খুঁত ঢেকে দিয়ে মসৃণ ফিনিশ দেয়, আর সেই সঙ্গে মুখে এনে দেয় ষোলো ঘণ্টা ধরে একটানা উজ্জ্বলতা। কয়েক ফোঁটা নিয়ে মুখে লাগিয়ে ব্লেন্ড করে দিন। গলাও বাদ দেবেন না। হালকা কভারেজ চাইলে আঙুল দিয়ে মুখে চেপে চেপে লাগিয়ে নিন। ভারী কভারেজের জন্য ভেজা স্পঞ্জ বা ব্লেন্ডার ব্যবহার করুন! ব্যস, আপনি রেডি! সত্যি বলুন, এর চেয়ে সহজ আর কিছু হয়?