নিজের ত্বকের জন্য সবাই সবসময় সেরাটাই চান! কিন্তু তার জন্য কোন প্রডাক্টটা ব্যবহার করবেন আর কোনটা এড়িয়ে চলবেন, সেটা জানা খুব জরুরি। আর ত্বক যদি সেনসিটিভ হয়, তা হলে তো কথাই নেই! সাবধান হয়ে চলতে হবে প্রতি পদে। স্কিনকেয়ার প্রডাক্টে সাধারণত যে সব উপাদান ব্যবহার করা হয়, তা আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ মনে হলেও তা থেকেই ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যেতে পারে। তেমনই একটি উপাদান হল সাবান। প্রতিটি বাড়িতে সকলেই সাবান ব্যবহার করেন। কিন্তু সেই সাবান থেকেই ত্বকে শুষ্কতা, প্রদাহ দেখা দিতে পারে, ত্বকের স্পর্শকাতরতা বেড়ে যেতে পারে। সে জন্য আমরা আপনাদের জানাতে চলেছি সোপ-ফ্রি ফেসওয়াশ ব্যবহার করার চারটি উপকারিতার কথা। পড়ে নিন ঝটপট!

 

01. ত্বককে ক্ষতির হাত থেকে বাঁচায়

01. ত্বককে ক্ষতির হাত থেকে বাঁচায়

সাবান মানেই ক্ষার, তা থেকে ত্বকের স্পর্শকাতরতা বেড়ে যেতে পারে, ত্বকে লালভাব, প্রদাহ দেখা দিতে পারে, আঁশের মতো উঠতে পারে। কড়া ক্ষারযুক্ত ফর্মুলা ত্বকের এমপিপি (ম্যাট্রিক্স মেটালোপ্রোটিনাসেস) রুখে দেওয়ার ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। ফলে ত্বকের কোলাজেন নষ্ট হয়ে যায়, ত্বকে অকালে বয়সের দাগ পড়তে শুরু করে। তাই সাবানযুক্ত ক্লেনজারের বদলে বেছে নিন সিম্পল কাইন্ড টু স্কিন রিফ্রেশিং ফেসিয়াল ওয়াশ/ Simple Kind to Skin Refreshing Facial Wash -এর মতো 100% সাবানমুক্ত ফেসওয়াশ। এই ফেসওয়াশ আপনার সেনসিটিভ ত্বক থেকে তেলময়লা সাফ করার পর কোনও অ্যালকালাইন অর্থাৎ ক্ষারক অবশেষ থাকতে দেয় না।

 

02. আর্দ্রতার ঘাটতি ঠেকায়

02. আর্দ্রতার ঘাটতি ঠেকায়

ক্লেনজার এবং অন্যান্য ত্বক ও চুলের প্রডাক্টে সাধারণত সাবান ব্যবহার করা হয়। এটি মূলত সোডিয়াম লবণের রাসায়নিক যৌগ যা ফ্যাটি অ্যাসিড থেকে পাওয়া যায়। জল আর তেলের সঙ্গে সাবান সহজেই গুলে যায়, ফলে খুব ভালো করে ত্বক পরিষ্কার করতে পারে। তা হলে সমস্যাটা কোথায়? সমস্যা হল, সাবান ত্বক থেকে স্বাভাবিক তেল আর আর্দ্রতা কেড়ে নেয়। ফলে ত্বকে টান ধরে ত্বক রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। এই সমস্যা এড়াতে সিম্পল কাইন্ড টু স্কিন ময়শ্চারাইজিং ফেসিয়াল ওয়াশ/ Simple Kind to Skin Moisturising Facial Wash এর মতো 100% সাবানমুক্ত ফর্মুলা ব্যবহার করুন। এটি সাবানমুক্ত, এবং এতে কোনওরকম কৃত্রিম সুগন্ধ, কড়া কেমিক্যাল এবং প্রাণীজাত উপাদান নেই। এতে রয়েছে প্রো-ভিটামিন বি5 (ত্বক নরম করে), বিসাবোলল (ত্বক আর্দ্র রাখে) এবং ভিটামিন ই (ত্বকে পুষ্টি জোগায়)-এর মতো নানা ত্বকবান্ধব উপাদান, ফলে সেনসিটিভ ত্বকের জন্য এটি আদর্শ ফেসওয়াশ।

 

03. ত্বক শুষ্ক করে দেয় না

03. ত্বক শুষ্ক করে দেয় না

সাধারণত সোপ-ফ্রি ফেসওয়াশ তৈরি হয় নানা পুষ্টিকর উপাদান ও তৈলাক্ত জিনিস দিয়ে, ফলে তা তেল ও জলের সঙ্গে মিশে গিয়ে ত্বকের উপরিভাগের তৈলাক্তভাব কার্যকরভাবে পরিষ্কার করে। সাবান ত্বক থেকে আর্দ্রতা শুষে নেয়, কিন্তু সাবানহীন ক্লেনজার ত্বকের তেলময়লা সাফ করে ত্বক রাখে নরম আর কোমল, ফলে ত্বক শুষ্ক হয় না, আর্দ্রতাও হারায় না।

 

04. ত্বক-বান্ধব উপাদানে ভরপুর

04. ত্বক-বান্ধব উপাদানে ভরপুর

সোপ-ফ্রি ফেসওয়াশের সবচেয়ে ভালো ব্যাপারটা হল, এ ক্ষেত্রে সাবানের পরিবর্তে নানা উন্নতমানের উপাদান ব্যবহার করা হয় যা ত্বকের জন্য কোমল এবং ত্বকে পুষ্টি জোগায়। সিম্পল কাইন্ড টু স্কিন রিফ্রেশিং ফেসিয়াল ওয়াশ/ Simple Kind To Skin Refreshing Facial Wash এ রয়েছে ভিটামিন ই, প্রো-ভিটামিন বি এবং ট্রিপল পিউরিফায়েড ওয়াটার যা ত্বক স্নিগ্ধ ও আর্দ্র রাখে। কোনও ফেসওয়াশ সাবানমুক্ত কিনা জানতে উপাদানের তালিকাটি দেখুন এবং সেখানে এমন নাম খুঁজুন যা সোডিয়াম বা পটাশিয়াম দিয়ে শুরু হয়ে এবং 'এট' দিয়ে শেষ হয়, যেমন সোডিয়াম গ্লুকোনেট।