যে সব মেয়েদের ত্বক সংবেদনশীল, তাদের পক্ষে ত্বকের যত্ন আর মেক-আপের জন্য প্রসাধনী কেনা সত্যিই সহজসাধ্য নয়| সামান্য এদিক ওদিক হলেই ত্বকের সমস্যা প্রকট হয়ে ওঠে| অনেক ত্বক আর মেকআপ সামগ্রীতেই কৃত্রিম সুগন্ধি আর অন্যান্য নানা রাসায়নিক যৌগ পদার্থ থাকে, যেগুলি ত্বকের সংস্পর্শে এলে লালচে ভাব, চুলকুনি বা দানা দানা র‍্যাশ বেরোয়| ত্বকের ঠিকঠাক যত্ন নিতে গেলে সবচেয়ে আগে বোঝা দরকার কোন কোন কারণে ত্বক সংবেদনশীল হয়| সেইজন্য আমরা এখানে কিছু প্রাথমিক প্রশ্নোত্তর নথিবদ্ধ করছি, যাতে বুঝতে পারা যায় ঠিক কোন কোন জিনিস থেকে সমস্যা হচ্ছে এবং সেই বুঝে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে পারেন|

সংবেদনশীল ত্বক কাকে বলে?
 

সংবেদনশীল ত্বক কাকে বলে?

সংবেদশীল ত্বক হল সেই ত্বক, যা সহজেই কোনও বিশেষ বস্তু যেমন ধুলোবালি, পোষা জীবজন্তুর লোম, ময়লা ইত্যাদির সংস্পর্শে এসে প্রতিক্রিয়া দেখায় এবং তার ফলে তাতে লালচে ভাব, দানা দানা র‍্যাশ অথবা চুলকুনির প্রকোপ হয়| এমনকী ঋতু পরিবর্তন আর মানসিক চাপও সংবেদনশীল ত্বকে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করতে পারে| ত্বক তখনই সংবেদনশীল হয়, যখন বাইরের কোন বস্তুর প্রভাবে ত্বকের স্বাভাবিক প্রতিরোধ ক্ষমতা প্রভাবিত হয় এবং তার ফলে ত্বকে অবস্থিত স্নায়ুর প্রান্তভাগগুলিতেও তার কুফল পড়ে|

এই সব স্নায়ু-উত্তেজনার কারণগুলি জেনে রাখুন:
. দূষণ

. পারিপার্শ্বিক বায়ুমণ্ডলের ঘন ঘন তাপমাত্রা পরিবর্তন, যেমন শীতাতপ-নিয়ন্ত্রিত অঞ্চল থেকে প্রস্থান ও আবার সেখানে প্রবেশ

. ঠান্ডা আবহাওয়া

. খর জল
. স্নানের সময়ে অত্যন্ত গরম জলের ব্যবহার

. অনিয়মিত ঘুম বা অনিদ্রা

. মানসিক চাপ

. সুইমিং পুল

. শুষ্ক বা অনার্দ্র ত্বক

কী করে বুঝবেন আপনার ত্বক সংবেদনশীল
 

কী করে বুঝবেন আপনার ত্বক সংবেদনশীল

ত্বকের সংবেদনশীলতা বোঝার অনেকগুলি লক্ষণ আছে| যদি ধোয়ার পরে ত্বক খুব টানটান লাগে আর চুলকানির ভাব হয়, উড়োজাহাজে থাকাকালীন ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়, শীতকালে ত্বক শুষ্ক কিন্তু গ্রীষ্মে তৈলাক্ত থাকে, মদ্যপান করলে বা অতিরিক্ত তেলমশলা দেওয়া খাবার খেলে ত্বক লাল হয়ে ওঠে, নতুন মেকআপ ব্যবহার করলে ত্বকে প্রতিক্রিয়া হয় এবং খসখসে জামাকাপড় পরলে ত্বকে চুলকানি হয়, সেক্ষেত্রে ত্বকের সংবেদনশীল হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলা যায়|

ত্বকের সংবেদনশীলতা থেকে মুক্তি পাওয়া কি সম্ভব?

সংবেদনশীল ত্বক এমন যত্নে রাখা উচিত যাতে আপনার দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় কোনও ফারাক না পড়ে| ত্বকের ঠিকঠাক যত্ন নিলে আপনি তাকে সুরক্ষিত করতে পারবেন এবং এমনভাবে রাখতে পারবেন, যাতে ত্বকে কোনরকম সমস্যা না হয়| আপনার ত্বক যাতে আর্দ্র, স্বাস্থ্যকর আর উজ্জ্বল থাকে সে বিষয়ে যত্নশীল হতে হবে৷

সংবেদনশীল ত্বকের জন্য কী ধরনের জিনিস ব্যবহার করা উচিত?
 

সংবেদনশীল ত্বকের জন্য কী ধরনের জিনিস ব্যবহার করা উচিত?

এমন সামগ্রী বেছে নিন, যা আপনার ত্বকের পক্ষে উপযুক্ত| বিশেষ করে যেগুলিতে অজস্র উপাদান ব্যবহার হয়নি সেগুলি এই ধরনের ত্বকের জন্য আদর্শ| প্রতিদিন সকালে আর সন্ধেয় ত্বক পরিষ্কার করে  ময়েশ্চরাইজ়ার লাগান, তারপর 15+ SPF| ত্বকে ব্যবহারের জন্য যা কিনছেন, তাতে দেখে নেবেন ‘ত্বকে ব্যবহারের জন্য পরীক্ষিত’ বা ‘সংবেদনশীল ত্বকের পক্ষে উপযোগী’ লেখা আছে কিনা| এমন পোশাকআশাক ব্যবহার করবেন না, যাতে ধোয়ার পরে অত্যন্ত তীব্র সুগন্ধির আভাস আছে| তেমন তীব্র সুগন্ধি কাপড় কাচার সাবান ব্যবহারও এড়িয়ে যাবেন, কারণ এ সব থেকে আপনার ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে|